Forum



Author Topic: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’ (Read 3402 Times)

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 09 Oct 2012 »

‘কেন লিখো’ কেন’ই বা ধ্বংস করো’ তুমি কি?

সময়কাল ১৯৮২ – ৮৩। আন্দরকিল্লা। পাঠক বন্ধু’ লাইব্রেরী। ধূঁলোভর্তি সেলফের মাঝামাঝিতে মাঝারি শরীর নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে’ মেরুদন্ড বেয়ে নেমেছে রকমারি হরফ’ - জীবন আমার বোন।

লাইব্রেরী বাবু’র খিটখিটে মেজাজ, আপাদমস্তক পরখ করে আমায়। ক্রেতা না পাঠক? যা হোক বর্তমানে বিক্রয়কমীদের আচার আচরণ নমনীয় বিনয়ী হয়েছে। কারণ, ডিজিটাল সভ্যতার যুগ বলে কথা।

লেখক মাহমুদুল হয় (ত্রিশ বছর আগের কথা’ পুরো নাম ভূলও হতে পারে) ঝরঝরে গদ্যে লিখেছেন আর একজন তরণ যুবককে সারাজীবনের জন্য উনার অনুরক্ত করে রেখেছেন। উঠতি তরুণীর প্রেম জীবনকে আবর্তিত করেছে। কোথাও চিরকুটে এসেছে- কেন লিখো’ কেনই বা ধ্বংস করো’ তুমি কি! কখন বা তরুণী হতাশ হয়ে উম্মাদিনীর মতো আচরণ করছে। ভালবাসার তরুণকে উদ্দেশ্য করে লিখেছে - তোমাকে তো পেলাম না’ তাই তোমার বিছানাটা এলোমেলো করে দিলাম। আর জীবন পুকুর পাড়ে দাঁড়িয়ে লেখক জীবন ঘনিষ্ট হয়েছেন, উঠে এসেছে একান্ততা’ কঠিন জীবনের খুঁটিনাটি।

অন্যদিকে ৭৫ পরবর্তীতে দস্যু বনহুরের স্ত্রী প্রেম’ সমাজ কাতরতা’ লেখিকা রোমেনা আফাজের প্রতি কৌতুহল সৃষ্টি করেছিলো। তেমনি ৮২তে হেলাল হাফিজের ফেরিঅলা আমাকে কষ্টের রকম ফের শিখিয়েছে। অবশ্যই আমি বিশ্বাস করি-

এবঙ দূঃখের শেষ আছে,
শেষ নেই শুধু কষ্টের..........

(চলবে)

Laila Mamtaz Rupa

  • Chunati(Deputi para),Boro Pukurer Purbo Par.Lohagara,Chaattagram.
  • 01819612230
  • rupa.lailamamtaz@gmail.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 09 Oct 2012 »

আসসালামু আলাইকুম।চাচু,আপনার লেখকদের লিস্টের রোমেনা আফাজ আমার কমন পড়েছে।ক্লাস সিক্সে সারা বছর বনহুর পড়েছি।সেই সময় নীহার রঞ্জন গুপ্ত ও পড়েছি অনেক।আর ছিল রবিন হুড।আর কত কত উপকথা।বঙ্গীয় উপকথা সবচেয়ে ভালো লাগতো।তলস্তয় এর বাংলা অনুবাদ।আর কত কিছু।প্রান ভরে পড়েছি।আলহামদুলিল্লাহ।ক্লাস সেভেন ছিল শরত আর রবীন্দ্র।ক্লাস এইটে ড্রাকুলা আর যত ভাম্পায়ারের কাহিনী।সাথে জুল ভারন।ক্লাস নাইনে প্রিয় ছিল সমরেশ মজুমদার।সেই বছর সবচেয়ে দাগ কেটেছিল "সোনার হরিণ নেই","বন পলাশীর পদাবলী","পথের পাঁচালী"।অনেক প্রিয় লেখা, অনেক প্রিয় লেখকের নাম এখন চট করে মনে পড়ে না।কুয়াশা পরযন্ত ভালই ছিলাম।মাসুদ রানা থেকে সর্বনাশের শুরু।আল্লাহ মাফ করুন।ভাল যে শেষ হল কোরআন শরীফ দিয়ে।
অনেক ধন্যবাদ,চাচু।আপ্নার লেখাটা টাইম মেশিনের কাজ করল। আপ্নার অন্য লেখাগুলি থেমে আছে কেন? আমি কিন্তু আমার কবিতাগুলি দিতে শুরু করেছি।পড়েছেন?

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 11 Oct 2012 »

এতো সুখ সইবো কেমন করে
ধন্যবাদ রূপা।

আত্নজীবন কথা’ লেখার মতো সমৃদ্ব জীবনী কিংবা দুঃসাহস কোনটাই আমার নেই। তবু ওপারের লেখক যাদের বই প্রচ্ছদ মলাট দেখে বড় হয়েছি, শৈশব কৈশোরের দুরন্ত প্রাণবন্ত দিনগুলো পার করেছি আর কোলকাতার শ্রী তে মুগ্ধ হয়েছি। জেনেছি তাদের সাফল্য, রাজনৈতিক’ সামাজিক’ অর্থনৈতিক এবং পারিবারিক জীবন পর্যন্ত। তাই আজ অকপটে তাদের ঋণের কথা স্বীকার করছি। অন্যদিকে তেমনি শরৎচন্দ্রের প্রতিবাদী লেখায় উদ্দীপ্ত হয়েছি বারবার। স্ব-যত্নে তাই ৮২তেই গুছিয়ে রেখেছি লেখকের উল্লেখযোগ্য কিছু বই।
- সেগুন কাঠের আলমিরা থেকে এখনো ঐতিহ্য উপচায়’
দেবদাস, চন্দ্রনাথ, চরিত্রহীনরা যেন কিছু বলতে চায়!

লেখক শরৎচন্দ্রের
জন্ম ১৫ই সেপ্টেম্বর ১৮৭৬ ইংরেজী।
মৃত্যু ১৩ই জানুয়ারী ১৯৩৮ ইংরেজী।


ডাঃ নীহার রঞ্জন গুপ্ত
জন্ম ০১লা জুন ১৯১৯ ইংরেজী।
মৃত্যু ২০শে ফেব্রুয়ারী ১৯৮১ ইংরেজী।

লেখকের গোয়েন্দা উপন্যাস কালোভ্রমর’ প্রথম আমার হাতে আসে ৮০ সালের দিকে। দূভার্গ্য আমার’ সিরিয়াগুলি সংগ্রহ করতে পারিনি। তবে লেখকের অন্যান্য বই- পদাবলী কীর্তন’ কলংকিনী কঙ্কাবতী এবং প্রেমের কিছু উপন্যাস পড়ার সৌভাগ্য আমার হয়েছে।

বিমল মিত্র
জন্ম ১৯১২ ইংরেজী।
মৃত্যু ১৯৯১ ইংরেজী।

আসামী হাজির’এই মরদেহ’ সাহেব বিবি গোলাম’ কঁড়ি দিয়ে কিনলাম’ নিঃসন্দেহে আমার পড়া বইয়ের মধ্যে অন্যতম। লেখকের লেখনির সাথে আমার প্রথম পরিচয় সম্ভবত ৭৮ সালে।

নিমাই ভট্টাচার্য্য
জন্ম ও মৃত্যু তারিখ আমার জানা নেই। জানিনে আজো জীবিত আছেন কিনা।তবে মৃত্যু কখনো উনাকে গত করতে পারবে না। উনার লেখার মধ্যে উনি বেঁচে থাকবেন আজীবন।

লেখকের বিখ্যাত উপন্যাস মেমসাহেব থেকে কটা উল্লেখ্য না করে পারছিনে-

- মানুষের জীবনে প্রথম ও প্রধান নারী হচ্ছে মা’। তার স্নেহ, তার ভালবাসা, তার চরিত্র, তার আদর্শ প্রতি পুত্রের জীবনেই প্রথম ও প্রধান সম্পদ।

লেখক জরাসন্ধের কি পাইনি? আমায় জীবনভর এক অনন্যা চপলা কিশোরীর কথা মনে করিয়ে দেবে।

ওপারের অন্যান্য লেখকঃ

সমরেশ মজুমদার থেকে শীর্ষেন্দুর বেশ কিছু বই আমার হৃদয় ছুঁয়ে গেছে। কিন্ত বাসা বদল’ একটু পড়ে দেখে দেবো’ জাতীয় উৎপাতে সম্ভবত বেশকিছু বই আমার সংগ্রহ থেকে বাদ পড়েছে।

(চলবে)

Laila Mamtaz Rupa

  • Chunati(Deputi para),Boro Pukurer Purbo Par.Lohagara,Chaattagram.
  • 01819612230
  • rupa.lailamamtaz@gmail.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 11 Oct 2012 »

আসসালামু আলাইক্মু।সত্যি সত্যি পড়তে ভালো লাগছে।আলহামদুলিল্লাহ।মনে হচ্ছে বন্ধ গুমোট ঘরের একটা জানালা খুলে দিয়েছে কেউ।
অসংখ্য লেখকের বিচিত্র প্রিথিবিগুলিকে কি উপায়ে এক প্রিথিবি করে ধারণ করে পাথক,আমার অবাক লাগে।আমি অবশ্য নিখুঁতভাবে কোন কিছু মনে রাখতে পারি না।
আপনি আলাউদ্দিন আল আজাদ এর 'তেইশ নাম্বার তৈলচিত্র' পড়েছেন?এই বইটা পড়ার পর আমার ব্যাখ্যার অতীত একটা অনুভুতি হচ্ছিল।এই কাহিনীটা নিয়ে একটা বাংলা সিনেমা তৈরি হয়েছিল। বোধহয় 'বসুন্ধরা' নামে।ইলিয়াস কাঞ্চন নায়ক ছিলেন। আমার খুব জানতে ইচ্ছে হয়েছিল এই ছবিতে অভিনয়ের পর উনি কেন একজন আরও অন্যরকম মানুষ হলেন না। এত ভালো ভালো লেখা পড়ার সৌভাগ্য হয়েছে এ জীবনে তার পর ও আমরা কেন খুব বেশি ভালো কেউ হয়ে উঠতে পারছি না,ভাবলে খারাপই লাগে। আমরা কি সুফলা শ্যামল মাটি নয়,পাথর? আল্লাহ যেমন কিছু মানুষ সম্পর্কে বলেছেন-এদের গায়ে কিছু শ্যওলা ধরণের জন্মায়,তারপর ......ভালো করে মনে করতে পারছি না আয়াত টা।আবার পড়তে হবে। আসলে ,বিস্মৃতিটাই সমস্যা।আপনার সুবিধা আপনি মনে রাখতে পারেন।আমার জন্য দোয়া করবেন ,আল্লাহ যেন আমার স্মরণ শক্তি বাড়িয়ে দেন। আর,যেন সুফলা শ্যামল মাটি হতে পারি।সোনালি ফসল ফলুক।জীবনের স্পরশ যেন পাই।পাথরের জীবন আর একেবারেই ভালো লাগছে না।

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 12 Oct 2012 »

ধন্যবাদ রুপা' তোমার দৃষ্টি নি:সন্দেহে অর্ন্তভেদী"। তোমার আরো লেখা আশা করছি। পাঠক বিরক্ত না হলে এবং ডট কম এডমিন এলাউ করলে অবশ্যই জীবন এবং পাঠ পর্ব বিষয়ে খুঁটিনাটি লেখার ইচ্ছে আছে। যদি বিন্যাস নিচের বর্ণনার মত হয় তবে কেমন হবে?

প্রথম পর্ব- জীবন আমার বোন।
দ্বিতীয় পর্ব- এতো সুখ সইবো কেমন করে।
তৃতীয় পর্ব- হিজ মাষ্টার্স ভয়েজ এবং মিষ্টি সূরের হাঁড়ি।
চর্তুথ পর্ব- ওয়েষ্টার্ণ কাহিনী :
ক) কাউবয়' স্পার' জিনস এবং ষ্ট্যাপিড
খ) রেঞ্জার এবং লংহর্ণ।
গ) কাউন্টি জাজ/ শেরিফ/ টাউন মার্শাল/ ইউ.এস মার্শাল।
ঘ) গান ফাইটার এবং ডুয়েল।
ঙ) আউট-ল/ মোষ্ট ওয়ান্টেড।

পঞ্চম পর্ব- হুমায়ুন আহমেদ বিষয়ক।
ষষ্ঠ পর্ব- এখনো নির্বাচন করিনি। আইডিয়া দিলে উপকৃত হবো।

ধন্যবাদ সবাইকে।

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 13 Oct 2012 »

* হিজ মাষ্টার্স ভয়েজ এবঙ মিষ্টি সূরের হাঁড়ি *

কৈশোরের মিষ্টি সূরেলা দিনগুলোর কথা মনে পড়লে আজো আমি পূলকিত হই। সময়কাল সম্ভবত ১৯৭৪ - ৭৬ ইংরেজী। আমার দাদী জাহেদা খাতুন তখন উনার নিজ বাড়িতে থাকতেন। এখানে একটা কথা না বললে আমার এ স্মৃতি চারণ অসম্পূর্ণ থেকে যাবে, তা হচ্ছে- জনাবা জাহেদা খাতুন অর্পূব সুন্দরী ছিলেন। শুধু রূপ নয় উন্নত পরিমিত রুচি আর গুনে পরিপূর্ণ ছিলেন তিনি। ১৪ সন্তানের মা হয়েও উনার চমৎকার ছিপছিপে শরীর ছিলো। ঠিক যেন কল্পনার পরী। কথা প্রসংঙ্গে গর্বের সাথে আরো জানাচ্ছি দাদীর পৈত্রিক নিবাস ছিলো চুনতির মুনসেফ বাড়ী। প্রখ্যাত শিক্ষক গণিতবিদ মমশাদুর রহমান আলোর ফুফু তিনি। যাক এবার মূল কথায় আসছি।
সংস্কৃতিবান দাদী প্রায় প্রতি সন্ধ্যা বিকালে উনার কলের গান* খুলে বসতেন। বাতাসে শিস কেটে যেতো কানন দেবীর* পরাণী কন্ঠ- ছন্দে ছন্দে দুলি আনন্দে আমি বন ফুল গো...। কথনো বা আঙ্গুর বালার* গাওয়া বিখ্যাত সব নজরুল গীতি* এতো জল ও কাজল চোখে পাষাণী... ।
মুগ্ধ হয়ে দেখতাম পিনের ছোঁয়ায় বড় রুটির মতো রেকর্ডটি কিভাবে কেঁপে কেঁপে নিঁখুত মধুর সূর ছড়ায়। তখনো পর্যন্ত রেকর্ড কভারে কুমারী জ্যোতিকা রায়* দের ছবিতে সন্তুষ্ট ছিলাম আমি। রেকর্ডের ধরণ অর্থাৎ আর পি এম সম্পর্কে কিছুই জানতাম না। পরবর্তীতে রেকর্ড সম্পর্কে যা জেনেছি তা হচ্ছে নিম্নরূপঃ


Diameter Revolutions Time Duration
per minute

12 in (30 cm) 33 1/3 rpm 45 min
Long play (LP)

45 rmp 12-inch single,
Maxi single and
extended play (EP)


10 in (25 cm) 33 1/3 rpm Long Play (LP)

78 rpm 3 Minutes

45 rpm Single and
Extended play (EP)


7 in (17.5 cm) 33 1/3 rpm Often used for
children's records
in the 1960s
and 1970s

তখন আমার পছন্দের র্শীষে ছিলেন -
কমলা ঝরিয়া (আসল নাম- কমলা সিন্‌হা)
জন্ম- ১৯০৬ ইংরেজী।
মৃত্যু- ২০শে ডিসেম্বর ১৯৭৯ ইংরেজী।
মূল গায়িকা- কীর্তন, রাম প্রসাদী, লোকগীতি।

উনার গাওয়া বিখ্যাত বাংলা ক্লাসিক্যাল গান -
দেখা হলে এই অবেলায়* সখি তাকে বলবো কি বল?
(এই গানটা আমার মোবাইল মেমোরিতে আছে কেউ শুনতে চাইলে নিতে পারবেন)।

মুগু বাঈ কুর্দিকার
জন্ম- ১৫ই জুলাই ১৯০৪ ইংরেজী।
মৃত্যু- ১০ই ফেব্রুয়ারী ২০০১ ইংরেজী।
মূল গায়িকা- ইন্ডিয়ান ক্লাসিক্যাল।


কে এল সায়গল (কুন্দলাল সায়গল)
জন্ম- ১১ই এপ্রিল ১৯০৪ ইংরেজী।
মৃত্যু- ১৮ই জানুয়ারী ১৯৪৭ ইংরেজী।
মূল গায়ক- ইন্ডিয়ান ক্লাসিক্যাল, অল্প সংখ্যক বাংলা গান।

উনার গাওয়া বিখ্যাত বাংলা ক্লাসিক্যাল গান -
এই পেয়েছি অনল জ্বালা

সুধীরলাল চক্রবর্তী
উনার বিখ্যাত ১০টি গানের মধ্যে ৬টি গান আমার কাছে অতি প্রিয় :

মধুর আমার মায়ের হাসি
খেলাঘর মোর ভেঙ্গে গেছে হায়
কেন ডাকো প্রিয়া প্রিয়া
আঁখি যদি ভোলে তারে মন কেন ভোলে না
এই দুটি নয়ন পলকে হারায় যারে
প্রথম দিনের প্রথম পরিচয়
(চলবে)

Laila Mamtaz Rupa

  • Chunati(Deputi para),Boro Pukurer Purbo Par.Lohagara,Chaattagram.
  • 01819612230
  • rupa.lailamamtaz@gmail.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 13 Oct 2012 »

আসসালামু আলাইকুম।চাচু , আপনার নিজের মতো করে লিখলেই বোধহয় ভালো হবে।আম্রা বরং চুপচাপ পড়ি।

Adnan Saquib

  • "Enayet Ali Ukil Bari. Munsef Bazar.Chunati.Lohagara.Chittagong. "
  • 01777651009
  • highwaymarkinc@gmail.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 14 Oct 2012 »

সালাম গুরুকবি,
বাবু ভাই।

ফোরামের এই টপিকটা লা-জাওয়াব হচ্ছে।
আমি নগন্য মানুষ। এই টপিকে একটা মন্তব্য লেখার তর সইছেনা।
আপনার তালিকাতে কোন কবিতার পরিচ্ছেদ পেলামনা।
ষষ্ঠ পর্বটা কবিতা দিয়ে হলে কেমন হয়!
নাম হতে পারেঃ '' কবিতার শরীর এবঙ গন্ধ''।

গুরু'কে অনেক শুভেচ্ছা।

দেখা হবে দৈবাৎ শব্দে-বর্ণে-অক্ষরে ;
যে আকাশের মেঘে অবিরত কবিতা ঝরে...


আদনান সাকিব

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 14 Oct 2012 »

কবি ভাই
প্রথমেই ধন্যবাদ জানাচ্ছি সুন্দর মন্তব্যের জন্য। আপনি মোটেই ছোট নন এবং আমি ন' কবি। আপনার বিনয় আরো একবার আমায় মুগ্ধ করলো।

কবিতা লিখতে অনেক সাহস লাগে। নৈবাদ্য নিবার্চনের চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো - বিষয়ের সুক্ষ্ম গভীরতা যা আপনার কবিতায় পরতে পরতে ....।

তবুও কথা দিলাম লিখবো আমি হয়তো ৬ষ্ঠ পর্বে।

ধন্যবাদ

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 14 Oct 2012 »

*আঙ্গুর বালা দেবী* - অভিনেত্রী, সঙ্গীত শিল্পী

জন্ম- ২৩শে জুলাই, ১৯০৬।
মৃত্যু- ০৭ই জানুয়ারী, ১৯৮৪।

সঙ্গীতে তালিম নিয়েছেন- অমলা মজুমদার, জ্যোতি প্রসাদ, রাম প্রসাদ মিত্র এবং ওস্তাদ জহির উদ্দিন খানের কাছে।

প্রথম রেকর্ড HMV তে পরিচালক জনাব কাপুর। পরবর্তীতে কাজী নজরুল ইসলাম শিল্পীকে নজরুল গীতি প্রশিক্ষক হিসাবে মনোনীত করেছিলেন। সময়কাল ১৯৩০ - ১৯৩২। শিল্পীর গাওয়া বিখ্যাত কিছু নজরুল গীতির মধ্যে নিচের ০৭ টি অন্যতম প্রধান বলে বিবেচনা করা হয় :

১) আমার যাবার সময় হলো
২) আসিলে এ ভাঙ্গা ঘরে
৩) বিদায় সন্ধ্যা আসিলে
৪) গানগুলি মোর
৫) নহে নহে প্রিয়
৬) নিশি ভোর হলো
৭) এতো জল ও কাজল চোখে

সূরের বাঁশি এই শিল্পী মোট ৩০০ শতের মত বাংলা গান করেছেন, যার অধিকাংশই রাগ প্রধান গান।

*ইন্দুবালা দেবী*

জন্ম- নভেম্বর ১৮৯৯
মৃত্যু- ৩০শে নভেম্বর ১৯৮৪

উনার গাওয়া অনেক নজরুল গীতির মধ্যে মিষ্টি কিছু রাগ ভিত্তিক নজরুল গীতির কথা উল্লেখ করছি :

১) সাঝের পাখিরা
২) মোর ঘুম ঘোরে
৩) কেউ ভোলে না, কেউ ভোলে
৪) বউ কথা কও
৫) অঞ্জলি লহ মোর

*বেগম আকতার* - গজল, দাদরা, ঠুমরি

জন্ম- ০৭ই অক্টোবর ১৯১৪
মৃত্যু- ৩০শে অক্টোবর ১৯৭৪

বিবাহ- ১৯৪৫ ইংরেজী
বর- ব্যরিষ্টার ইসতিয়াক আহমেদ আব্বাসী। স্বামীর অনুরোধে দীর্ঘ ০৫ বছর তিনি সঙ্গীত থেকে দূরে ছিলেন। এবং ১৯৪৭ সালে পুনরায় তিনি ০৩টি গান এবং ০১টি দাদরা রেকর্ড বের করেছিলেন।

শিল্পীর ০৩টি ক্লাসিক্যাল গানের কথা উল্লেখ না করে পারছি না।

১) চুপি চুপি চলে না গিয়ে
২) এ মৌসুমে পরদেশে যেতে তোমায় দেবো না
৩) জোছনা করেছে আড়ি, আসে না আমার বাড়ি

**পঙ্গজ মল্লিক** - সঙ্গীত শিল্পী, সঙ্গীত পরিচালক, কম্পোজার...

জন্ম- ১০ই মে ১৯০৫ ইংরেজী
মৃত্যু- ১৯শে ফেব্রুয়ারী ১৯৭৮ ইংরেজী

উনার গাওয়া বিখ্যাত অনেক রবীন্দ্র সঙ্গীতের মধ্যে নিচে আমার পছন্দের ০৪টি :

১) আমার রাত পোহালো
২) আমি কান পেতে রই
৩) দিনের শেষে ঘুমের দেশে
৪) দিনগুলো মোর সোনার খাঁচায়


তেমনি *রবীণ মজুমদার* (আমার আধার ঘরের প্রদীপ), *অখিল বন্ধু ঘোষ* (জাগো জাগো প্রিয় রজনী পোহায়), *সুবীর সেন* (এতো সুর আর এতো গান), *শচীন দেব বর্মন* (বিরহ বড় ভালো লাগে, তুমি এসেছিলে পরশু), *শ্যামল মিত্র* (আমার স্বপ্নে দেখা রাজকন্যা থাকে), *লতা* (কেন গেলে পরবাসে বল বধূযা?), * জগন্ময় মিত্র* (স্বপ্ন সুরভী মাখা দূলর্ভ রাত্রি, তুমি আজ কত দূরে, ভালোবাসা মোরে ভিখারী করেছে, আমি দূরন্ত বৈশাখী ঝড়, তুমি কি এখন দেখিছো স্বপন, আমি ভোরের হাওয়ায় দেখেছি তোমারে..) দের প্রচুর রেকর্ড দাদীর সংগ্রহে ছিলো (৪৫ আরপিএম, ৭৮ আরপিএম এলপি ইপির প্রায় ৩ শতাধিক) নাটকের মধ্যে নবাব সিরাজ-উদ-দৌল্লা এবং দেবী সুলতানা নাটকের কথা মনে পড়ে আজো।

পরবর্তীতে ফুফাতো ভাই মিয়া মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিনের সরাসরি সহযোগিতায় বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রচুর দূলর্ভ রেকর্ড সংগ্রহ করেছি, সাথে দুই দুইটি কলের গানও। একটি হেন্ড ড্রাইভ, অন্যটি বিদ্যুতের সাহায্যে চালিত। আজ হেলাল ভাই বেঁচে থাকলে আরো অনেক রসালো তথ্য দিতে পারতাম।

ধন্যবাদ *** HMV***
(His Master Voice)

Ashique

  • House 13, Road 3, Block B, Banasree R/A, Rampura, Dhaka
  • 01713-037292
  • ashique_lsc@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 15 Oct 2012 »

অাহা...
এ এক মন জুরােনা অনুভূিত...
অাপনার েলখার জন্য আমরা অেপক্ষায় থািক মামা...

একজন েহ্লাল মামা এই ভােবই েঁবেচ থােকন আমােদর মােঝ তাঁর সৃিষটেত...

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 15 Oct 2012 »

ধন্যবাদ মামা
হেলাল ভাই সম্পর্কে আরো কিছু লিখতে পারতাম যদি চোখ ভেঙ্গে অশ্রু না আসতো। উনার স্মৃতি আজো আমায় দিশেহারা করে তোলে। সঙ্গীত, কবিতা, উপন্যাস, নাটক এবং সংস্কৃতির সবগুলো শাখাতে যার ছিলো অবাধ বিচরণ।

হেলাল ভাইয়ের প্রিয় শিল্পী ছিলেন-

সঙ্গীতে: সুধীর লাল চক্রবর্তী, পন্ডিত অজয় চক্রবর্তী, জটীলেশ্বর মুখোপাধ্যায়, হেমন্ত মুখোপাধ্যায় এবং সতীনাথ।

বিশাল ক্যানভাসের তৈলচিত্র শিল্পী এস.এম সুলতান কে হেলাল ভাই অত্যন্ত শ্রদ্ধার চোখে দেখতেন। অন্যদিকে, মুর্তজা বশীরও ছিলেন উনার প্রিয় একজন চিত্রকর।

ব্যক্তিগত জীবনে হেলাল ভাই ছিলেন একজন আপদমস্তক ভদ্রলোক এবং ধার্মিক।

আরেকটা কথা এখানে না বললেই নয় তা হচ্ছে- আমার দাদীর সঙ্গীত প্রেম পেয়েছিলেন উনার সুযোগ্য দুই কণ্যা। তারমধ্যে অন্যতম বড় ফুফু (হেলাল ভাইয়ের মা) এবং ফুফুর চেহারাও অবিকল দাদীর মতন ছিলো। যার হয়তো অনেকটাই পেয়েছেন উনার নাতনী সাঈদা পারভীন (জনাব আহম্মদ সৈয়দ সাহেব এবং সালমা বেগমের বড় কন্যা, আপনার বড় বোন)।
ধন্যবাদ।


Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 15 Oct 2012 »

*কাউবয়েস* Cowboys

কাউবয়' শব্দটি আমেরিকার টেক্সাসে ১৮৬০ সালে প্রথম ব্যবহৃত হয়। তখন কাউবয় বলতে বোঝাতো 'যে ব্যক্তি ঘোড়া দিয়ে পশু চড়ায়'। স্প্যানিশ ভ্যাকুয়ারের ইংরেজী শব্দ কাউবয়। ১৮৫২ সালে যেখানে কাউবয়দের বলা হতো কাউহ্যান্ড। ১৮৮১ সালে কাউপোক টেক্সাসে বলা হতো কাউ পাঞ্চার।
কাউবয়রা ১২ - ১৩ বছর বয়স থেকে কাউবয়ের কাজের প্রশিক্ষণ নিতো এবং দক্ষতা অর্জন করা শুরু করতো। অন্যদিকে তেমনি হাতে গনা ক'জন কাউগার্ল এর কথাও বিভিন্ন বর্ণনায় পাওয়া যায়।

আমেরিকার গৃহ যুদ্ধের পরে উত্তর ও পূর্ব আমেরিকার বাজারে হঠাৎ করে গরুর মাংসের চাহিদা বৃদ্ধি পায়। তখনকার এক হিসাবে দেখা গিয়েছে, শুধুমাত্র টেক্সাসেই রয়েছে ৬ মিলিয়নের অধিক লং হর্ণ জাতীয় গরু।

তখন কাউবয়দের কাজ ছিলো গরুর পাল ড্রাইভ করা। টেক্সাস থেকে রেলরোড, অ্যাবিলন, ডজসিটি, উইসিটা এবং নিউটনের কাউ টাউন পর্যন্ত কাউবয়রা নিরাপদে গরুর পালকে নিয়ে যেতো। গরু ব্যবসা তখন ক্যানসাস, ওয়াইমিং, মনটানা, নিউ মেক্সিকো, কলরাডো এবং আরিজোনা পর্যন্ত প্রসার লাভ করেছিলো।

কাউবয়দের অন্যতম আরেকটি কাজ ছিলো- গরুকে branding করা। যা সাধারণত মালিকের নামের অক্ষর কিংবা রেঞ্জের নামে করা হতো। আরেকটি তথ্য হচ্ছে- কাউবয়রা সবসময় এক বান্ডিল রশি সাথে রাখতো (lariat) গরু ধরা এবং অন্যান্য কাজে ব্যবহার করার জন্য।

একজন ঐতিহাসিক বলেছেন, তিনি পশ্চিমে ৩৫ হাজার কাউবয় জরিপ করে দেখেছেন যাদের প্রায় অধিকাংশের গায়ের রং কালো।
তখন কাউবয়দের সাপ্তাহিক বেতন ছিলো ১০ ডলার। যার অধিকাংশই তারা মদ পান, জুয়া খেলা এবং পতিতালয়ে গমনে ব্যয় করতো।
(চলবে)

Laila Mamtaz Rupa

  • Chunati(Deputi para),Boro Pukurer Purbo Par.Lohagara,Chaattagram.
  • 01819612230
  • rupa.lailamamtaz@gmail.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 15 Oct 2012 »

"সূরের বাঁশি এই শিল্পী মোট ৩০০ শতের মত বাংলা গান করেছেন, যার অধিকাংশই রাগ প্রধান গান।"
চাচু, ৩ শত না ৩০০শত?

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 15 Oct 2012 »

শুদ্ধ হবে - ৩ শতের মতো।

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 20 Oct 2012 »

কাউবয়দের অঙ্গসাজ ছিলো অতি চমকপদ- বিচিত্র। ফ্রক ছাড়া কোট, জিন্স, ডেনিম, হাইহিলের লেদার বুট, মাথায় মনকাড়া ক্যাপ, ব্যান্ডানা* কোমরে কাউবয় নাইফ (কখনো বা ষ্টক নাইফ, ক্যাটল নাইফ) আবার অনেক সময় পিস্তল পর্যন্ত শোভা পেত।

কাউবয়দের প্রিয় খাদ্য ছিলো গরুর মাংস ভাজি, শিম, আলু ভাজি এবং ডিম।
অন্যদিকে, কাউবয়দের অনেকেই ছিলেন গানহ্যান্ড এবং অতিরিক্ত মেজাজী যারা পরবর্তীতে OUTLAW জীবনে প্রবেশ করে অপঘাতে মৃত্যুবরণ করেছিলেন। যার মধ্যে বিলি দ্যা কিড ছিলেন অন্যতম। কাউবয়দের নিয়ে আরো অনেক রকমারি তথ্য আছে, যা এ সীমিত পরিসরে লেখা সম্ভব নয়। *কাউবয় ট্যাডিশন এসেছে স্প্যান থেকে।
* ব্যান্ডানা* - a large cotton neckerchief that had myriad uses "from mopping up sweat to masking the face from dust storms".

ওয়েষ্টার্ন সেলুন
কাউবয়, সোলজার, প্রসপেক্টারস, মাইনরস এবং গ্যাম্বলারস বা জুয়াড়ীদের চিত্ত-বিনোদনের জন্য অন্যতম প্রধান স্থান ছিলো- সেলুন। সাপ্তাহিক ছুটির দিনে (রবিবার) কাউবয়দের আনাগোনা বেশী হলেও অন্যান্য দিনেও সেলুনগুলি বেশ জমজমাট থাকতো।
যেখানে কাস্টমারদের চিত্ত-চিনোদনের সেলুন কর্তৃপক্ষ মদ, নাচগান, ফারো, পোকার, থ্রি কার্ডস, ডাইস গেমস্‌, বিলিয়ার্ডসহ বিভিন্ন ধরনের লেখার ব্যবস্থা রাখতেন। যদিও তখনকার সেলুনের মদগুলো ছিলো একেবারে RAW' হোম মেইড। অন্যদিকে, নর্তকীদের কেউ কেউ অতিরিক্ত আয়ের জন্য গোপনে দেহ ব্যবসাও করতো।
সেলুন পরিচালনার দায়িত্বে থাকতেন যিনি তাকে বলা হতো বারকিপার বা বারটেন্ডার। সেলুনের কাউন্টারে বসে তিনি গোটা সেলুন পরিচালনা করতেন। এই বারটেন্ডারদেরকে অনেক সময় কঠিন পরিস্থিতি মোকাবেলা করার জন্য শর্টগান হাতেও দাড়াতে হতো।
(চলবে)

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 20 Oct 2012 »

* রেঞ্জ হাউজ* - Ranch House
রেঞ্জ হাউজ বলতে যেখানে রেঞ্জাররা থাকতেন তা বুঝালেও মূলত রেঞ্জ হাউজ ছিলো একধরনের হেড কোয়াটার যেখানে বসে রেঞ্জাররা তাদের গরুর ব্যবসা পরিচালনা করতেন। কাউবয়রা সারাদিনের অমানুষিক পরিশ্রমের পর রেঞ্জ হাউজে ফিরে তাদের জন্য নির্ধারিত কোয়াটারে বিশ্রাম নিতেন। রেঞ্জাররা কাউবয়দের জন্য বিনা পয়সায় থাকা খাওয়ার সু-ব্যবস্থা রাখতেন। তবে তাদের এ বিশ্রাম প্রায় সময়ই বিঘ্নিত হতো, ষ্টাম্পিড জাতীয় বিভিন্ন ঝামেলার কারণে।

বাথানের মালিকরা প্রথমে জায়গা নির্বাচন করতেন এবং নির্বাচনের জন্য মাথায় রাখতেন পর্যাপ্ত ঘাস, পানি এবং ড্রেন ব্যবস্থা আছে কিনা। পরে উনারা সরকারের কাছে উক্ত জায়গার মালিকানার জন্য আবেদন করতেন।

রেঞ্জাররা বছর শেষে গরু বিক্রী করে তাদের যাবতীয় দায়-দেনা পরিশোধ করতেন এবং বাড়তি টাকা ব্যাংকে জমা রাখতেন। হার্ডওয়্যারের দোকান যেখানে পেরেক, কাঁটা তার, লোহার শিকল ইত্যাদি দ্রব্য পাওয়া যেত তেমনি জেনারেল ষ্টোর হতে রেঞ্জাররা ময়দা, বেকন থেকে শুরু করে রাইফেল পর্যন্ত বাকিতে ক্রয় করতেন। শুধুমাত্র সেলুন এবং নাপিত, কামারের মজুরী নগদে পরিশোধ করা হতো।

জরিপে দেখা গেছে, রেঞ্জাররা লংহর্ণ গরুতে সর্বোচ্চ বিনিয়োগ করতেন এবং লাভবান হতেন। যদিও ক্যাটল ড্রাইভের সময় প্রচুর পরিমানে ক্ষয়ক্ষতি হতো, ইন্ডিয়ান হামলা প্রায় অনির্বায্ থাকতো। তেমনি অন্য রেঞ্জারদের সাথে বিভিন্ন কারণে সংঘর্ষেরও সৃষ্টি হতো, যা গোলাগুলি ডুয়েলে শেষ হতো। অন্য এক তথ্যে জানা যায়, বড় বড় রেঞ্জাররা কাউবয়ের ছদ্মবেশে গানম্যান পুষতেন। তাদের মাসিক বেতন ছিলো ৬০ থেকে ৮০ ডলারের মতো, যা একজন কাউবয়ের মাসিক বেতনের প্রায় দ্বিগুন।

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 20 Oct 2012 »

*আউটলস - outlaws*
কিছু কিছু কাউবয়, গানহ্যান্ড কিংবা গান ফাইটাররা অনেক সময় ফেয়ার ফাইট না করে আইনের দৃষ্টিতে অপরাধী সাব্যস্থ হতেন। তেমনি প্রফেশনাল খুনীদেরকেও আউটলস বলা হতো। আউটলসরা সবসময় আইনের চোখ এড়িয়ে চলতেন। বড় ধরনের খুনী কিংবা দূধর্ষ আউটলস'র জন্য পুরষ্কার ঘোষণা করা হতো। ওয়ান্টেড পোষ্টার জুড়ে থাকতো তাদের ছবি এবং পুরষ্কারের টাকার অংক।
অনেক আউটলস্‌ পরবর্তীতে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে এসেছিলেন। নিচে কয়েকজন বিপদজনক আউটল'র কথা উল্লেখ করছি।
*বিলি দ্যা কিডস্‌ : যিনি ছিলেন আউটলদের সম্রাট। তাকে নিয়ে প্রচুর বই, ছবি এবং সঙ্গীত রচিত হয়েছে। যদিও তিনি অন্যান্যদের মতো ঠান্ডা মাথার খুনী ছিলেন না। পরিচিতজনেরা বলেছেন উনি ছিলেন সাহসী, সৎ এবং প্রতিবাদী। যেখানে কিংবদন্তী আছে তিনি ২১ বছরে ২১টি খুন করেছেন। ১৮৭৭ সালে তিনি কাউবয় হিসাবে এক রেঞ্জে যোগদান করেছিলেন। যখন তার মালিক ঐ রেঞ্জারকে শত্রুরা হত্যা করলেন তখন থেকে প্রতিশোধ গ্রহণের মাধ্যমে উনার আউটল জীবনের শুরু। আউটল কিং বিলি দ্যা কিড শেরিফ পেট গারেট উনাকে গোপনে বন্ধুর বাসা থেকে বের হওয়ার সময় গুলি করে হত্যা করেছিলেন।
তেমনি জেসি জেমস্‌, জন উসলি হাডিন, বুচ কেচিডি, সানডেন্স কিডরা প্রত্যেকে দূধর্ষ আউটল। তাদের প্রত্যেকেই বিভিন্নভাবে খুন হয়েছেন।
(চলবে)

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 20 Oct 2012 »

* শেরিফ - Sheriff*
বন্য পশ্চিমের শহরগুলিতে শেরিফরা অত্যন্ত ক্ষমতাবান ছিলেন। স্থানীয় নির্বাচনের মাধ্যমে উনারা শেরিফ নির্বাচিত হতেন। একজন জর্জের অধীনে উনাদের কার্যাবলী পরিচালিত হতো। স্থানীয়ভাবে উনারা বিভিন্ন বিষয়ে পরামর্শের জন্য নগরপিতা বা মেয়রের শরণাপন্ন হতেন। সাধারণত নাগরিকদের ছোটখাটো অপরাধ বা আইনভঙ্গের অপরাধে তাদেরকে জর্জকোটে জরিমানা করা হতো। তেমনি খুন জাতীয় অপরাধের জন্য কোর্টের ফাঁসির আদেশ পর্যন্ত কার্যকরী করা ছিলো একজন শেরিফের অন্যতম দায়িত্ব। উনি বড় ধরনের তদন্তের জন্য ডেপুটি নিয়োগ করার ক্ষমতা সংরক্ষন করতেন। তখনকার দিনে ঘোড়া চোরদের জন্য দ্রুত বিচার আইনের ব্যবস্থা ছিলো। রাসলাদের সকলে খুবই খাটো চোখে দেখতেন এবং অনেক সময় ক্ষ্রিপ্ত জনতা তাদেরকে বিনা বিচারে ফাসিতে ঝুলাতেন (Lynching)।

প্রত্যেক শেরিফ বা ল-ম্যানরা অস্ত্রে পটু ছিলেন তেমনি সৎ এবং সাহসীও ছিলেন।

ডুয়েল :
আমেরিকার পুরনো পশ্চিমে ডুয়েল ছিলো মর্যাদার লড়াই। সামনা সামনি দাঁড়িয়ে প্রতিপক্ষকে অস্ত্রের মাধ্যমে ঘায়েল করা তখনকার দিনে বৈধ ছিলো। বলা হতো ফেয়ার ডুয়েল আইনসম্মত। কোন পুরুষ অন্যকোন পুরুষকে চ্যালেঞ্জ করলে কিংবা কা-পুরুষ বা চোর বলে অবহিত করলে তখন গোডাউন হতো।

*** আপাতত সমাপ্ত ***

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 20 Oct 2012 »

না বলা কথা- এক

সেবা প্রকাশনীর কর্ণধার কাজী আনোয়ার হোসেনের ছোট ভাই এবং কাজী মোতাহের হোসেনের ছোট ছেলে মাইনিং ইঞ্জিনিযার কাজী মাহবুব হোসেন যিনি দীর্ঘদিন আমেরিকার টেক্সাসে চাকুরী করেছেন তিনিই এদেশে প্রথম বাংলায় ওয়েষ্টার্ন বই লেখেছেন। সেবা প্রকাশনী উনার যে বইগুলো বাজারে ছেড়েছে:

* আলেয়ার পিছনে*, *পাতকী*, *রক্তাক্ত খামার*, *জ্বলন্ত পাহাড়*, *মানুষ শিকার*, *ভাগ্যচক্র - ১, ২*, *আর কতদূর*, *বাধন*, *রাইডার*, *এপিড-ওপিড*, *আবার ইরফান*, *রূপান্তর*, *ডেড সিটি*, *বুনো পশ্চিম*, *ল্যাসার ফাঁস*, *লুটতরাজ*, *কাউবয়*, *গানফাইট*, *দাবানল- ১,২*, *রক্তরাঙ্গা ট্রেইল* ইত্যাদি।

অত্যন্ত দূঃখের সাথে জানাচ্ছি সম্ভবত ২০০৯ ইংরেজী সালের দিকে ক্ষণজম্মা এই লেখক মৃত্যুবরণ করেছেন। তখন আমি প্রিয় লেখকের মৃত্যুতে বিসন্ন হয়ে সেবার রহস্য পত্রিকাতে দু'লাইন লেখার সৌভাগ্য অর্জন করেছিলাম।
প্রসঙ্গত আরো উল্লেখ করা যায় বর্তমানে ডাঃ গোলাম মাওলানা নাঈম নিয়মিতভাবে বাংলা ওয়েষ্টার্ন বই লিখছেন।
তেমনি কাজীদার ছেলে কাজী মাইমুর হোসেনের লেখা বৃষ্টির মতো ওয়েষ্টান বই বাজারে আছে (অবশ্যই আমার সংগ্রহে আসে)।
কাজী শাহনূর হোসেন, শওকত হোসেন, তাহের শামসুদ্দীনসহ অনেকেই চমৎকার সব ওয়েষ্টার্ন কাহিনী বাংলায় লিখেছেন। পাঠক ইচ্ছে করলে চট্টগ্রামের মিমি সুপার মার্কেট, আধুনিক লাইব্রেরী কিংবা ঢাকার বাংলা বাজারে সেবা প্রকাশনীর শোরুম থেকে বইগুলি সংগ্রহ করতে পারবেন।
ধন্যবাদ সবাইকে।

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 20 Oct 2012 »

না বলা কথা- এক

পড়ুন ২০টির মতো বৃষ্টির স্থলে।

আরো অন্যান্য ভূলের জন্য আমি লজ্জিত।
ধন্যবাদ সবাইকে।

Laila Mamtaz Rupa

  • Chunati(Deputi para),Boro Pukurer Purbo Par.Lohagara,Chaattagram.
  • 01819612230
  • rupa.lailamamtaz@gmail.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 21 Oct 2012 »

বিস্মিল্লাহ
আসসালামু আলাইকুম,চাচু।আপনার লেখাটা পড়ে একটা ভাবনা মাথায় আসলো।

একসময় আপ্নার দেয়া লিস্টের সবগুলি বইই,এরকম আরও অনেক বই এক সময় কতটা আগ্রহ করে পড়েছি আর কতটা তাঁর ছাপ পড়েছিল আমার উপর তাঁর প্রমান আমার জীবনের আধা ওয়েস্টার্ন অংশ। খাদের ভিতরে আছড়ে পড়ে আবার উঠে আসা - প্রায় অলৌকিক এই শেষ জীবনটা পাওয়া- আল্লাহতাআলার অসীম দয়া। বাংলা সাহিত্যের এই অনুবাদ ধারার লেখাগুলির ব্যাপারে লেখক আর পাঠকদেরকে আমার কিছু বলার আছে।

চোখ ধাঁধানো যে কোন কিছুই আসলে মানুষকে কাণ্ড জ্ঞান হীন করে ফেলে খুব সহজে। বন্য জীবনকে আমরা স্বাধীনতার প্রতীক হিসাবে দেখি ভুল করে। বন্যেরা বরং আরও বেশি নিয়মে বাঁধা। ওয়েস্টার্ন জীবনের যে দিকটা এই বইগুলিতে খুবকরে তুলে ধরা হত -তার আশে পাশেই ছিল মূল জীবন ব্যবস্থাটা । যা আমরা তাদের ইতিহাসের বই গুলিতে পাই। সেখানে তাদের পিছনে ফেলে আসা মাত্রিভুমির জন্য কষ্ট ছিল, ফেলে আসা সমাজ - সংস্কারের জন্য টান ছিল, নতুন বসতিতে অধিকার পাওয়ার নিশ্চয়তার অভাব ছিল, অনেকগুলি সমসজের ভাঙ্গা টুকরা দিয়ে তৈরি সমাজে নিয়ম কানুনের অসঙ্গতি ছিল -যা নিয়ে আমাদের ভাবনার আর মগজ চরচার সুযোগ ছিল।সব ফেলে আমরা গ্রহণ করেছিলাম - উদ্দামতা আর উশ্রিংখলতা টাই। কেন এমন হয়েছিল? আমরা ছিলাম সমাজের সবচেয়ে ভালো অংশ - যারা জ্ঞান অর্জন, চর্চা আর প্রসার কে জীবনের লখ্য করে নিয়েছিলাম বুদ্ধি হবার সাথে সাথেই। আরও ভালো কিছু করার জন্য যে বিপুল উতসাহ আর উদ্যম তার এমন করুণ অপচয় কেন হয়েছিল? লেখকদেরকে বুঝতে হবে কোন শব্দটার ক্ষমতা কতটুকু - । সমাজ - সভ্যতার কাছে দায়বদ্ধতা তাদেরকে স্বীকার করতেই হবে । এটা কলমের প্রাপ্য সম্মান। কলম যার হাতে যাবে তাঁকে অবশ্যই এই সম্মান রাখতে হবে। আর ,পাঠক কি করবে? সাহিত্যের জগতে পাঠক পৃষ্ঠ পোষক হিসাবে যতই শক্তিশালী হোক, দর্শন গ্রহণ বর্জনের ক্ষেত্রে সে দুর্বল।শত সতরকতার পরেও লেখক তার উপর ছাপ ফেলবেই।তাৎক্ষণিক না হলেও।অল্পবয়সীরা প্রেম আর দেশ- বিদেশর দিকে ঝুঁকবেই, যেমন বয়স্করা রাজনীতি আর অরথনীতির দিকে যাবেই। কাজেই, সাম্নের মানুষ হিসাবে লেখকদেরই সতর্ক হবার দায়িত্ব বেশি।আর দায়িত্ব তাদের যারা এই লেখক আর লেখাগুলিকে পাঠকের কাছে পৌঁছে দিচ্ছেন। ঠিক না?
অনেক শুভেচ্ছা আর,আবার সালাম।সাথে ধন্যবাদ। আপনি লিখলেন বলে আমি লেখার সহজ পথ পেলাম। আপনার কাছে আমি আরেকটা কারনে খুবই কৃতজ্ঞ- আমাকে ফোরামে আসার আমন্ত্রণের জন্য। আল্লাহ্‌র কাছে আপনার সর্বাঙ্গীণ কল্যান কামনা করি।

Laila Mamtaz Rupa

  • Chunati(Deputi para),Boro Pukurer Purbo Par.Lohagara,Chaattagram.
  • 01819612230
  • rupa.lailamamtaz@gmail.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 21 Oct 2012 »

আপনার লেখক- জীবন দিন দিন আরও সুন্দর আর সুখের হক।আল্লাহ আমাদেরকে পরস্পরের কাছে আর আল্লাহ্‌র কাছে সম্মানিত করুন।সালাম।

Adnan Saquib

  • "Enayet Ali Ukil Bari. Munsef Bazar.Chunati.Lohagara.Chittagong. "
  • 01777651009
  • highwaymarkinc@gmail.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 21 Oct 2012 »

অনেক ধন্যবাদ গুরুভাই...
পড়তে পড়তে যেন অতলে চলে যাচ্ছি।
টেক্সাসের ভ্যালী, মিডো, চষে বেড়াচ্ছি।
খুব কিশোর বয়সে ওয়েস্টার্ন পড়তাম,
এবঙ সেসব থেকে জীবনের যে রোমাঞ্চ পেতাম, মনে হলো তা আবার ফিরে পেলাম।
ডেনিম, কাউবয় হ্যাট, জ্যাকেট, বুট...
তখন শুধু এসবই খুঁজে ফিরতাম।
এখনো জুতো পড়ি অনেকটা বুটের মতো।
আমার এখনো মনে পড়ে, কাউবয়দের মতো করে কিশোর বয়সে প্যা্ন্ট'র লুপ-এ
লাঠি বা ছোট ছিপ ঝুলিয়ে রাখতাম। মনে মনে ভাবতাম আমি কাউবয়... হাহ্‌হাহা...

সবকিছু অনেক আগেই ফেলে এসেছি জীবন থেকে...
কিন্তু আপনার অসাধারণ লেখা পড়ে মনে হলো
সেই সময়গুলোর সোনালী প্রত্যাবর্তন ঘটলো।
অফিসের সব কাজ ফেলে নস্টালজিয়ায় ডুবে গেছি...

অনেক ধন্যবাদ আবারো।

পুনশ্চঃ গুরুভাই, আপনার লেখায় ইন্ডিয়ানদের আক্রমণের কথা বলেছেন। ওটা তো রেড ইন্ডিয়ান হবে, তাই না?


Laila Mamtaz Rupa

  • Chunati(Deputi para),Boro Pukurer Purbo Par.Lohagara,Chaattagram.
  • 01819612230
  • rupa.lailamamtaz@gmail.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 22 Oct 2012 »

সালাম।
আদনান সাকিবের কথা শুনে আমার একটা কথা মনে পড়লো। এক সময় চুনতিতে বর্ষার তিন মাস পরীক্ষা মূলক প্রোগ্রাম এর জন্য গরু নিয়ে পাহাড়ে থাকতে পারে এমন রোমান্টিক কাউবয় মেজাজের কিছু ইয়াং ছেলের খোঁজ করেছিলাম ।আনন্দ আর ব্যবসা দুইই হতো তাদের।পাইনি।এখন দেখছি এই মেজাজের ছেলে আমাদের আছে। এরা শুধু স্বপ্ন কেন দ্যাখে? সত্যি সত্যি একবার স্বপ্নের মতো হয়ে যায় না কেন?

Adnan Saquib

  • "Enayet Ali Ukil Bari. Munsef Bazar.Chunati.Lohagara.Chittagong. "
  • 01777651009
  • highwaymarkinc@gmail.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 22 Oct 2012 »

Walaikumassalam.
Rupa Apu, really well said.

I can feel something very excited in my dream only,
not in reality.

and one's utopia being a cowboy is very romantic
but in real life for the cowboys are really exotic.

and of course i could not been there at chunati forest in rainy season.
i am not the perfect man. thats certainly impossible for me.
but if it would be rock highland, or the valley of several streams,bank with colorful pebble stones, so that, i wish i could be. and i am still young for the experience.

for your wishes hats off my cowboy hat....
be well and happy with smile.

adnan saquib



Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 22 Oct 2012 »

ধন্যবাদ রুপা'
আসলে উল্টো' আমিই বরং তোমার কাছে ঋণী। তুমি গুণীজন' সাহিত্যের ছাত্রী। কি সাধ্য আমার' নিজগৃহে আমন্ত্রণ জানাবো তোমায়?

এবঙ চমৎকার হচ্ছে তোমার প্রতিটা লেখা'

আবারো ধন্যবাদ।

Saiful Huda Siddiquee

  • "Chunati. "
  • 031-2853031, 01819-328359
  • shsiddiquee@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 22 Oct 2012 »

////////ডুয়েল :
আমেরিকার পুরনো পশ্চিমে ডুয়েল ছিলো মর্যাদার লড়াই। সামনা সামনি দাঁড়িয়ে প্রতিপক্ষকে অস্ত্রের মাধ্যমে ঘায়েল করা তখনকার দিনে বৈধ ছিলো। বলা হতো ফেয়ার ডুয়েল আইনসম্মত। কোন পুরুষ অন্যকোন পুরুষকে চ্যালেঞ্জ করলে কিংবা কা-পুরুষ বা চোর বলে অবহিত করলে তখন গোডাউন হতো।//////
.....................।।এখানে
শেষের লাইনে কি সোডাউন পড়ব?
আপনার লেখার পড়তে অনেক ভালো লাগছে ।
আরো বেশী বেশী লেখা চাই।
মাঝে মাঝে মনে হয় চাকরিটা আমাদেরকে বড্ড বেশী
ক্ষতি করছে / সীমারেখা টেনে িদয়েছে অনেক বেশী।



Saiful Huda Siddiquee

  • "Chunati. "
  • 031-2853031, 01819-328359
  • shsiddiquee@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 22 Oct 2012 »

আপনার সাগরিদ কবি সাকিবের জন্য

Elisabeth Mcgrath এর লেখা থেকে চারটি লাইন

" When the sun goes down it's the end of day
And the cow and horses are tucked away
Other cowboys join him in the campfire ring
As he strums his guitar they all softly sing"

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 22 Oct 2012 »

ধন্যবাদ কবি ভাই
(প্রথমেই প্রশ্ন করছি - আমার ভাইঝি রুপা' আপনার বোন হয় কিভাবে? দুলাভাইয়ের ভাইঝি হতে পারে খালা কিংবা ফুফু, তাই নয় কি?)
আসলেই আমি ভাগ্যবান। জিরো' যোগ্যতার আমাকে আপনি নজরে এনে বার বার ঋণী করেছেন এবং শুধু আরবার।
ঋণী আমি আপনার ষোড়শী প্রাণবন্ত মায়াবী শব্দের কাছে।
হ্যাঁ, ভাইজান' রেড ইন্ডিয়ান হবে। সরি।

রেড ইন্ডিয়ান:
Christopher Columbus wanted to go India but went the wrong way and discovered America and thought the natives were Indians hence the name Red Indians.

ইন্ডিয়ান জাতির মধ্যে নিম্নলিখিত গোষ্ঠির কথা বারবার আলোচনাতে এসেছে:
১) অ্যাপাচী
২) চিরোকি
৩) চিন্নি
৪) চিনূক
৫) ইরোকাস
৬) মহুক
৭) নাভাজো
৮) অন্যান্য গোষ্ঠি

কিন্তু অ্যাপাচীকেই সবচেয়ে বেশি ভয়ংকর গোষ্ঠি হিসাবে বলা হয়েছে। যেমন-

অ্যাপাচী ট্রেইল'
- যেখানে শুধু পাহাড়ী হরিণ আর ছাগল ছাড়া অন্য কারো যাবার সাধ্য নাই।
অ্যাপাচী আক্রমণ'
- মুহুর্তে মাটি ফুঁড়ে ঝাঁকে ঝাঁকে অ্যাপাচী' পায়ে মোকাসিন মুখে ভয়ংকর উল্কি ইত্যাদি ইত্যাদি।
জিরোনিমো'
- রেড ইন্ডিয়ান সর্দার' তিনি অ্যাপাচী গোত্রের ছিলেন। এই সর্দারের মা, স্ত্রী এবং তিন সন্তানকে মেক্সিকান সৈন্যরা ১৮৫৮ সালে নিষ্ঠুরভাবে হত্যা করেছিলো। প্রতিশোধ নেবার জন্য তিনি বিশাল এক বাহিনী গঠন করেছিলেন। যে বাহিনী পরবর্তীতে আরিজোনা, নিউ মেক্সিকো এবং টেক্সাসে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছিলো এবং ১৮৮৬ তিনি ইউ.এস কর্তৃপক্ষের নিকট আত্নসর্মপন করেছিলেন। তখন তিনি তার অজেয়, দূর্বার, সাহস ও ব্যক্তিত্বের কারণে কিংবদন্তী পুরুষে পরিণত হয়েছিলেন। ১৯০৯ সালে ওকলোহোমাতে মৃত্যুবরণ করেছিলেন্।
আমরা মুসলিমরা ভার উত্তোলন কিংবা কঠিন কোন কাজে অন্তরগত শক্তির উত্থানের জন্য বলি - ইয়া আলী' তেমনি আজ পর্যন্ত আমেরিকানরা বলে- জিরোনিমো! জিরোনিমো!
ধন্যবাদ।

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 22 Oct 2012 »

ধন্যবাদ ছাইফুল ভাই'
নজরে এনেছেন দেখে খুব ভালো লাগছে।
বন্য পশ্চিমে পিস্তলবাজদের সবাই ঘৃণার চোখে দেখলেও মুলত: গানম্যানরা' কাউবয়দের তুলনায় অনেক বেশী উপার্জন এবং বিলাসী জীবন যাপন করতেন। ভাড়াতে পিস্তল খাটিয়ে প্রভাবশালীদের পক্ষ নিলেও কখনো শোডাউনে ডুয়েল লড়েছেন বলে আমি অন্তত শুনিনি।
তাদের অনেকেই পরবর্তীতে অনেক আনাড়ীর হাতে খুন হয়েছেন। গান ফাইটে কোন গানহ্যান্ড খুন হলে তখনকার রীতি অনুযায়ী তাকে বুট হিলে কবর দেয়া হতো। আন্ডারটেকারের চার্জ প্রতিপক্ষ না দিলে শহরের মেয়রের ফান্ড হতে ব্যয় করা হতো। সেবা প্রকাশনীর ওয়েষ্টার্ণ লেখক কাজী মাহবুব হোসেন উনার বাস্তবে ওয়েষ্টার্ণ কাহিনী বইতে লিখেছেন আরো বিস্তারিত এবং সচিত্র।
ধন্যবাদ।

Laila Mamtaz Rupa

  • Chunati(Deputi para),Boro Pukurer Purbo Par.Lohagara,Chaattagram.
  • 01819612230
  • rupa.lailamamtaz@gmail.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 22 Oct 2012 »

সালাম।
'ক্যাম্প ফায়ার ' টেকনাফের কথা মনে করিয়ে দিলো। ৭দিনের RSL Basic training এ গিয়েছিলাম ২০০৪ এ সারাদেশের কলেজগুলি থেকে ৬০ জনের কাছাকাছি লেকচারার ,প্রফেসর সহ মুক্তদলের বেশ কিছু স্কাউট,স্কাউট লিডার।৭ দিন রাতে দিনে টেকনাফের পাহাড় - সমুদ্র- নদী পাড় - উপজাতি জীবন দেখা ,ভোরের কুয়াশায় লাইন ধরে মার্চ করা- হাইকিং -ক্যাম্পিং আর আশ্চরয্য এক সিলেবাসে দুনিয়ার যত রকম বিদ্যাচরচার পর মায়াময় ক্যাম্প ফায়ার! আমার জীবনে এমন করে জীবন কে আর কখনো পাইনি।এত টা প্রাণ ভরে এর আগে কখনো বাঁচিনি।
দীক্ষার আগের রাতে ,আমাদেরকে কিছু প্রশ্ন দেয়া হয়েছিলো রাত জেগে ভাবার জন্য। সত্যি ভেবেছিলাম। 'কে আমি?'- 'কেন আমি?' 'কার আমি?'- 'কোথা থেকে এলাম?'-'কোথায় যাবো?''কি করছি?'- কেন করছি-? পরিণতি কি?' সৃষ্টি, স্রষ্টা - জীবন - নানা বিষয়ে গভীর কিছু চিরন্তন ভাবনা। মধ্যরাতে আকাশের অন্ধকারে তারার আলোর দিকে তাকিয়ে যখন এসব ভাবছিলাম - হঠাৎ মনে হয়েছিলো- আকাশটা খুব কাছে চলে এসেছে! এখনো জানিনা কেন এমন হয়েছিলো। আকাশের ওপারে তাঁর কোথা ভাবছিলাম, আকাশ নিয়ে তো নয়। এমন কেন লাগলো! ...............। প্রসঙ্গের অনেক বাইরে চলে গেলাম । থাক।আর না লিখি। সাকিবের জন্য 'smile' আর ও সহ সবার জন্য সালাম। ঈদ মুবারক।চুনতিতে অনেকের সাথেই হয়ত দেখা হয়ে যাবে।

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 23 Oct 2012 »

এতো সুখ সইবো কেমন করে - ২

* লেখক কাজী আনোয়ার হোসেন*
- যিনি এদেশের মানুষকে নতুন এক গদ্যে অভ্যস্থ করেছেন।
গুণী' এ লেখকের কথা না লিখলে মনে হয় আমার গোটা স্মৃতিচারণ মিথ্যা হয়ে যাবে। কৈশোরের দুরন্ত সে দিনে যেমন কুয়াশা* শহীদের চোর-পুলিশ পুলিশ খেলা' কামালের বিশাল বাইকের ভয়ংকর গর্জন আর মহুয়া ভাবীর মমতা আমায় যাদু করেছিলো' ঠিক তেমনি ধ্বংস পাহাড়ের রেবেকা যখন বুলেট বিদ্ধ হয়ে মাসুদ রানার (এম.আর নাইন) কোলে ঢলে পড়লো তখন আমার দু'চোখ স্রেফ জলে ভরে উঠছিলো...। ভারত নাট্যম' স্বর্ণমৃগ' মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা' দুর্গম দুর্গ কিংবা শত্রু ভয়ংকরে' কালপ্রিট ওয়ালী আহম্মদকে ঠাট্টা করে মেজর বলেছিলো - ওয়ালী আহম্মদ আমি তোমার মাসুক নানা বলছি' বাম হাতটা উপরে তুলে ডান হাত দিয়ে তোমার টেকো মাথাটা একটু চুলকাওতো...। নীল ছবিতে' জীবন মৃত্যুর মুখোমুখি দাঁড়িয়ে পাকিস্তানী কর্নেল ফারুকের সাথে ঠাট্টা করা' কেবলমাত্র বাংলাদেশ কাউন্টার ইন্টেলিজেন্ট এর মেজর (সাবেক) মাসুদ রানার পক্ষেই সম্ভব! পালাবে কোথায়ে' রাশিয়ান সন্ত্রাসী গুস্তাফ তাতাভস্কি' তখন ব্লেড হাতে রেডি' যে রানা একদিন তাকে পুরুষত্বহীন করেছিলো' আজ সেও রানার একই অবস্থা করবে' অত:পর শুধু টান টান উত্তেজনা। বিষনিশ্বাসে' একদিকে খল-নায়িকা শিবানীর দূর্দান্ত ফাইট' অন্যদিকে ড্রাইভ দিয়েছে রানা... তারপর শিস বাজাতে বাজাতে হাত ধরলো মেজাজী রূপার (কর্ণেলের ভাইঝি)।
রানা একজন স্পাই' দেশ বিদেশে ঘুরে বিভিন্ন মিশনে' অপূর্ব সুন্দর তার হৃদয়' তেমনি দেশপ্রেম।

জেমস ভন্ডের ভক্ত কাজীদা' থ্রীলার সিরিজে সত্যি আজ অবধি অতুলনীয় স্রষ্টা। তাইতো ৪২০টির মতো রানা সিরিজ এগিয়ে চলছে এখন।

অন্যদিকে, সেবা রহস্য সিরিজের রহস্যময়ীর' কথা উল্লেখ না করলেই নয়। অপূর্ব সুন্দরী কিন্তু খুনী আসমা সিরাজীর (তপতী' ছদ্মনামে) ভয়াল রূপ এবং শেষ পর্যন্ত চকরিয়ার গভীর পাহাড়ের এক পরিত্যক্ত কুঁটিরে হতভাগ্য আবেদকে ফাঁসিয়ে দেয়া পর্যন্ত নিঁখুত ছোবল ছলনা' আমায় আজীবন কাজীদা'র ভক্ত করে রাখবে।

সেবা প্রজাপতির অন্য বইয়ের কথা বলার আগে আমার মনে হয় কাজীদা সম্পর্কে কিছু বলা প্রয়োজন।

পিতা- কাজী মোতাহের হোসেন, বিজ্ঞানী, লেখক।
ভাই- কাজী মাহবুব হোসেন, এদেশে বাংলায় ওয়েষ্টার্ণ কাহিনীর সুচক।
বোন- জোবেদা মির্জা, সানজিদা খাতুন, ফাহমিদা খাতুন এবং মাহমুদা খাতুন।
স্ত্রী- ফরিদা ইয়াসমীন (নিলুফার ইয়াসমীন, সাবিনা ইয়াসমীনদের বড়বোন)
পুত্রদ্বয়- কাজী মায়নুর হোসেন, কাজী শাহনুর হোসেন।
কাজীদার শিক্ষাগত যোগ্যতা- ঢাকা ভার্সিটি হতে বাংলায় এম.এ।

(চলবে)

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 24 Oct 2012 »

সেবার অনেক অনবদ্য অনুবাদ উপন্যাসের মধ্যে vampire কাহিনী Dracula অন্যতম। মূল লেখক Bram Stoker' ছিলেন একজন আইরিশ। ১৮৭৯ - ১৮৯৮ পর্যন্ত তিনি লন্ডনের বিশ্ববিখ্যাত Lyceum Theatre এর ব্যবস্থাপক ছিলেন। যেখানে তিনি লেখালেখি করেও প্রচুর আয় করতেন। vampire কাহিনী Dracula লেখার আগে তিনি ইউরোপের গ্রামীণ সংস্কৃতি এবং vampire ধারণার উপরে দীর্ঘ ৭ বছর গবেষনা করেছিলেন। অত:পর তিনি ২৬শে মে ১৮৯৭ সালে vampire কাহিনী Dracula উপন্যাসটি প্রকাশ করেন।

এই পিশাচ কাহিনীটা লেখক সচরাচর গল্পের ঢংয়ে উপস্থাপন করেননি' বরং একজনের ডাযেরী থেকে বর্ননা করেছেন। তিনি সদ্য পাশ করা একজন ইংরেজ আইনজীবি- Jonathan Harker যাকে তার নিয়োগকর্তা Peter Hawkins কাউন্ট ড্রাকূলার আইনজীবি নিযোগ করেছিলেন। দীর্ঘ ট্রেন যাত্রা শেষে অবশেষে তরুণ আইনজীবি পাহাড় ঘেরা এক প্রত্যন্ত অঞ্চলে কাউন্টের প্রাসাদে এসে উঠলেন। এবং সাথে সাথে তিনি বুঝতে পারলেন তাকে বন্দী করা হয়েছে। এ এক শ্বাসরুদ্ধকর পিশাচ কাহিনী- নিশি রাতে ড্রাকুলা বের হয় রক্তের সন্ধানে' সাথে আর তিন অপূর্ব রমণী!
আর দিনে মরার মতন ঘুমান কফিনে শুয়ে।
মুন্সী এ লেখক মূলত: তখনকার শোষক সমাজকে ইঙ্গিত করে প্রতিকী এ লেখা লিখেছেন।
সেবা প্রকাশনী তার সহজাত প্রতিভা প্রয়োগ করে ড্রাকুলা উপন্যাসটির আরো সুন্দর বাংলা অনুবাদ করেছেন ( ড্রাকুলা- ১, ২)।
(চলবে)

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 25 Oct 2012 »

সেবা রোমান্টিক
*কথা রাখো*
কানিজকে সঙ্গ দিতে কেকা গিয়েছিলো যশোরে। ঘটনার এখানেই শুরু। কিন্তু কেকা জানতো না, আসলে এক ঘোর বিপদ তার সঙ্গ চাইবে। জানত না, ফারুকের বাড়ি একটি ফাঁদ, আর একটি ফাঁদ হচ্ছে তার অতি সাধের প্রাচীন মূর্তি- খুবই দামী, আইভরির তৈরি। কিন্তু তার চেয়ে বড় ফাঁদ ফারুক নিজেই। কেকা প্রথম থেকে সাবধান থাকতে চেয়েছে, পারেনি। যখন বুঝল, পালিয়ে যাওয়া ছাড়া গতি নেই, দেখল, দেরি হয়ে গেছে। কেউ তাকে জটিল ফাঁদে ফেলেছে। কে এই ভিলেন? আবেদা? ছন্দা ভাবী? না ফারুক নিজেই? এক ষড়যন্ত্রকারীকে কীভাবে ভালবাসবে কেকা? কেকার পাশে গিয়ে দাঁড়ানো ছাড়া আসলে আমাদের করার কিছু নেই। কী করা যায়, পাঠক? যাবেন?

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 25 Oct 2012 »

*রবিন হুড*
কাজীদা'র নিজ হাতে অনুবাদ করা অনবদ্য একটি adventure কাহিনী ।
নবাব সিরাজ-ঊদ-দৌলা রোড, চন্দনপুরা। সময়কাল ১৯৮০ সাল। সম্ভবত মার্চ কিংবা এপ্রিল হবে তবে তখন বসন্তকাল ছিলো। আনুমানিক বিকাল ৫ টার দিকে আমার হাতে এসে পৌছায় এই বিরল কাহিনীর উপন্যাসটি। আমি তখন একা থাকি হিসাবে আমার কোন বাধ-বাধকতা ছিলো না। অতএব, ঠিক তখনই পড়া শুরু করলাম। শেষ করলাম পরদিন রাত আনুমানিক ৯ টায়। এই একদিনের অধ্যায়ন আমাকে সম্পূর্ণ এক নতুন মানুষে পরিনত করেছিলো। এমনই মায়া' এমনই যাদু' এমনই পরশ' কাজীদা'র আঙ্গুলে। তখন তরুণ হলেও আমি এতটুকু বুঝতাম অনুবাদ গ্রন্থে সাহিত্যের তেমন কোন সুযোগ থাকে না। অথচ রবিনহুড পড়লেই বুঝবেন- কাজীদা' সত্যিই একদার মনযোগী সাহিত্যের ছাত্র।

ইংল্যান্ডের নটিংহাম শহরের কাছেই ছিল বিশাল শেরউড জঙ্গল। সেই জঙ্গলে আস্তানা গেড়েছিল দুর্দান্ত দুঃসাহসী এক মহৎ-হৃদয় দস্যু-রবিন হুড ও তার সাত-কুড়ি দুর্ধষ অনুচর। অত্যাচারী নর্মান শাসক, প্রজা-নিপীড়ক জমিদার, অসৎ ব্যবসায়ী আর অর্থ-লোলুপ বিশপমোহান্তদের অন্তরাত্মা কাঁপিয়ে দিয়েছিল রবিন, কিন্তু আমার লুন্ঠিত অর্থ দীন-দুখীদের মধ্যে বিতরনের মাধ্যমে জয় করে নিয়েছিল সাধারণ মানুষের অন্তর।

সূচীঃ

* রবিন হুড কিভাবে আউট লয়ের খাতায় নাম লিখালো?*
*তার বন্ধু আজীবনের সঙ্গী বিশাল দেহধারী বীরযোদ্ধা লিটল জনের কথা*
*আরো আছে অন্যান্য প্রায় ৭ কুড়ি দুর্ধর্ষ অনুচরের কাহিনী*
*নটিংহামের শুটিং ম্যাচ*
*অনুচর উইল ষ্টিউটলিকে কিভাবে ফাঁসির মঞ্চ থেকে রবিন হুড উদ্ধার করেছিলো*
*অত:পর বহু কাহিনীর জন্ম দিয়ে কিভাবে বন্দী হলো রবিন*
*এবং সর্বশেষে রবিন হুডের শেষ তীর*

** খ্রীষ্টীয় দ্বাদশ শতাব্দীর শেষের দিকে আসলেই রবিন হুড নামের একজন ছিল এবং আরো ছিলেন ঐ অত্যাচারী শাসকরা। অন্যদিকে, ইংল্যান্ডে লিটল জনের কবর পাওয়ার খবর সত্য। যে কবরে অস্বাভাবিক লম্বা মানুষের অস্থি আবিস্কৃত হয়েছে।

শেষ বয়েসে এসে রবিনহুড যখন চিকিৎসার জন্য তার বোনের বাসায় উঠেছিলো, তখন তার বিশ্বাসঘাতক বোন তার হাতের শিরা কেটে দিয়েছিল এবং এইভাবেই রবিনের মৃত্যু হয়েছিল। অথচ মরার আগে বিশ্বস্ত সাগরিত লিটলজনকে বলে গিয়েছিলো- আমার হত্যাকারী বোনের কোন বিচার তুমি করতে পারবে না। কারণ, আমার দ্বারা এ যাবত কোন স্ত্রীলোকের ক্ষতি হয়নি, তাছাড়া আমরা তোমরা ঐ ধরনের শপথও গ্রহণ করেছিলাম তাই নয়কি?

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 25 Oct 2012 »

* মধ্যযুগের কবির আত্ম পরিচিতিমূলক রচনায় সমাজ সংস্কৃতির পরিচয়* শিরোনামে আহমদ নূরুল ইসলাম লিখেছেন- আমাদের অজানা অনেক কথা।
প্রাচীনকালে বা মধ্যযুগে বাংলা সাহিত্যে আত্মজীবনী বলে কিছু ছিল না। জীবনে খ্যাতিমান লোকেরাই সাধারণত আত্মজীবনী বা স্মৃতিকথা লিখতেন।
প্রথম বাংলা আত্মজীবনীর লেখক হলেন- রাসসুন্দরী দাসী (১৮০৯-১৯০০) - যিনি প্রথম জীবনে ছিলেন নিরক্ষর। উনার বাড়ী ছিল বাংলাদেশের ফরিদপুর অঞ্চলে। যেহেতু, তিনি জমিদারের স্ত্রী ছিলেন সেহেতু উনার অনেক সুযোগ ছিল। সে সুযোগ তিনি কাজে লাগিয়ে স্ব-শিক্ষিত হয়ে আত্মজীবনী রচনা করেছিলেন- 'আমার জীবন'। যা ১৮৬৮ খ্রিষ্টাব্দে প্রকাশিত হয়েছিলো।
একই সময় কৃষ্ণচন্দ্র মজুমদারের আত্মজীবনীও প্রকাশিত হয়েছিল। যার শিরোনাম ছিল- 'রা-সে ইতিবৃত্ত'।
পরবর্তীতে পনের শতক থেকে আঠারো শতক পর্যন্ত রামায়ণ, মহাভারত, ভাগবতের অনুবাদ, মনসামঙ্গল, চন্ডীমঙ্গল, ধর্মমঙ্গল, শিবমঙ্গল, গঙ্গামঙ্গল (শ্রীতৈন্যের জীবনীমূলক), চরিত-সাহিত্য, পুঁথি-সাহিত্য ও বিভিন্ন প্রকার পাঁচালী কাব্যে' কবির অনুলিপিকারের ও পাঁচালীকারের যৎসামান্য আত্মপরিচয় মেলে।

কবি জয়ানন্দ (১৬ শতক) তাঁর "চৈতন্যমঙ্গল" কাব্যে চৈতন্যের জম্মের (চৈতন্যের জম্ম ১৪৮৬ খৃষ্টাব্দের ১৮ই ফেব্রুয়ারী) কিছুকাল পূর্বে নবদ্বীপে, সে-কালের মুসলমান মাহমুদ শাহী বংশের শাসক সুলতান জলালুদ্দীন ফতেহ্‌ শাহ্‌ খুব অত্যাচারী শাসক ছিলেন, এমন কথা লিখতে গিয়ে বলেছেন:

"আচম্বিতে নবদ্বীপে হৈল রাজভয়
ব্রাক্ষণ ধরিঞা রজা জাতি প্রাণ লয়।
নবদ্বীপে শঙ্খধ্বনি শুনে যার ঘরে।
ধন প্রাণ লয় তার জাতি নাশ করে।
(চলবে)

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 30 Oct 2012 »

عيد مبارك ‎ঈদ মুবারক*

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 30 Oct 2012 »

Eid special : a Japanese Short Poem
by Matsuo

年暮れぬ
笠きて草鞋
はきながら

Toshi kurenu
Kasa kite waraji
Hakinagara

Another year is gone;
and I still wear
straw hat and straw sandal.

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 31 Oct 2012 »

নাটিকা- *নিকটে সমুদ্দুর*

আশ্চর্য্যের বিষয় হচ্ছে- আমার অতি ছোটকালের কথা পর্যন্ত মনে থাকলেও আজ সেদিনটার তারিখ সন ঠিক মনে করতে পারছিনে। যেদিন আমার লেখা নাটিকা- *নিকটে সমুদ্দুর* চুনতী মহিলা কলেজে মঞ্চস্থ হয়েছিলো। সময়কাল সম্ভবত: ১৯৯১ - ৯২ ইংরেজী। বক্তব্যধর্মী নাটিকাটি চার অঙ্কের বা দৃশ্যের।

সেদিন অনেক বিশিষ্ট জনের উপস্থিতি অনুষ্ঠানটিকে অনেক প্রাণবন্ত করেছিলো। উপস্থিত ছিলেন সর্ব জনাব- মইনুল ইসলাম চৌধুরী হিরণ, ইসলাম কাওয়াল, রোকন উদ্দীন খান, মিয়া মোহাম্মদ হেলাল উদ্দীন সহ আরো অনেকে। উনাদের মধ্যে দু'জন আজ আমাদের মধ্যে নেই। তবুও আত্মার মানুষ বলে' উনাদেরকে আমি মরহুম বলতে পারছিনে। আপনারা আমায় ক্ষমা করবেন।

নাটকের চরিত্র পাত্রের সবাই চুনতীর তখনকার উচ্ছ্বল তরুণ যুবক।

দেশপ্রেমিক আত্মপ্রত্যয়ী যুবক:
মোহাম্মদ আজিজুল হক চৌধুরী (পিতা- রাশেদুল হক চৌধুরী- মধু কোম্পানী)।

যে নারী কথা রাখেনি:
লিট্টা আবদুল্লাহ (বিশিষ্ট টিভি মডেল ও অভিনেত্রী' আল- মনছুরের স্ত্রী, মাহবুবা সুমীর বড় বোন)।

রেস্তোরা ম্যানেজার:
শেখ নাসির উদ্দীন (বিশিষ্ট আওয়ামীলীগ নেতা)।

হোষ্টেল মাস্তান:
মোহাম্মদ আলী (প্রিন্স অব রাঙ্গা পাহাড়)।

মাস্তান সহকারী:
মো: জাফর আলম।

অন্যান্য উচ্ছ্বল যুবকগণ:
আব্দুল কাইয়ুম রুবেল, মাহবুব কামাল, মুজিব, আবদার, আব্দুল হাকিমসহ অনেকে।

কালোবাজারী:
আনোয়ার কামাল (বিশিষ্ট্ আওয়ামীলীগ নেতা' সম্প্রতি জাতিসংঘ ইকুয়েটর পুরস্কার ২০১২ অর্জন করায় যাকে নিয়ে গোটা দেশের সংবাদ মাধ্যমগুলি সরব হয়ে উঠেছিলো)।

বিচিত্র পথচারী:
মোহাম্মদ মশিউর রহমান মঞ্জু (পিতা- মরহুম মধু স্যার)।

হাইজ্যাকার:
মোহাম্মদ নওশাদ আলম বাচ্চু।

নেপথ্য সংলাপ এবং সার্বিক নির্দেশনা- শেহজাদ।

লাইটিং এবং মঞ্চ পর্দা- কাজী আরিফ (ভুলু)

বিশেষ উপদেষ্টা- মিয়া মোহাম্মদ হেলাল উদ্দীন।

আজ এতদিন পরে সব চরিত্র এবং ব্যক্তির কথা আমার ঠিক স্মরণ নেই বলে আমি অত্যন্ত দুঃখিত।

(চলবে)

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 31 Oct 2012 »

প্রথম দৃশ্য-

মুখর রেস্তোঁরা*

একেবারে *র* একটা রেস্তোঁরা। অনেকটা পুরনো ওয়েষ্টার্ন ধাঁচের। কৌশলী বারটেন্ডার। সজীব কাউবয়দের জায়গা দখল করেছে উচ্ছ্বল কিছু তরুণ যুবক। ধূমায়িত চা কাপ' নিউজ পেপারের হেড লাইন ছুঁয়ে নেমেছে কৌতুহলী চাহনি। ধানমন্ডি লেকে যুবতীর বিকৃত লাশ .....। এবঙ অবশেষে ধরা খেল কচুখেতের মুরগী মিলন!

রেকর্ড প্লেয়ারে হাই ভলিয়্যুম। অলিভিয়া নিউটনের পরানী- কান্না হার্ট এ্যাটাক*এমনি এক শ্বাসরুদ্ধকর সময়ে খোঁচা খোঁচা দাঁড়ি শুভ্র পায়জামা পাঞ্জাবীর এক শ্যামলা যুবকের আগমন। পর মুহুর্তে যুবকের অনামিকা ছুয়ে যায় প্লেয়ারের ষ্টপ বটম।

যুবক এক মুঠো মাটি হাতে নিয়ে দরদী কন্ঠে বলে উঠে-
আরে বেকুবের দল' চেয়ে দেখ এ মাটির মমতা
মায়ের খুশবু'
চিনতে পারিস কিনা...

বাকী ডায়লগ লাইনগুলি মনে করতে পারছিনা।
তবে পর্দা নামার সাথে সাথে বেজে উঠেছিলো দেশের গান-
সোনা সোনা সোনা' লোকে বলে সোনা
সোনা নয় যত খাটি, তার চেয়ে খাঁটি
বাংলাদেশের মাটি.......।
(চলবে)

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 01 Nov 2012 »

দ্বিতীয় দৃশ্য:
বিশাল ড্রইং রুম জুড়ে অস্থিরভাবে পায়চারী করছে এক তরুন যুবক। ওশান ব্লু জিন্স' এডিডাস গেঞ্জি' অথচ শ্যামলা মুখ ভর্তি খোঁচা খোঁচা দাড়ি। হঠাৎ দাড়িয়ে পড়লো যুবক' তার দৃষ্টি ছুঁয়েছে হেলাল হাফিজের ফেরীঅলা। নিমিষে ছোবল দিলো সবল ডান হাত।

কষ্ট নেবে কষ্ট
হরেক রকম কষ্ট আছে
কষ্ট নেবে কষ্ট।

লাল কষ্ট নীল কষ্ট কাঁচা হলুদ রঙের কষ্ট
পাথর চাপা সবুজ ঘাসের সাদা কষ্ট
আলোর মাঝে কালোর কষ্ট
কষ্ট নেবে কষ্ট।

ঘরের কষ্ট পরের কষ্ট পাখি এবং পাতার কষ্ট
দাড়ির কষ্ট
চোখের বুকের নখের কষ্ট,
একটি মানুষ খুব নীরবে নষ্ট হবার কষ্ট আছে
কষ্ট নেবে কষ্ট।

প্রেমের কষ্ট ঘৃণার কষ্ট নদী এবং নারীর কষ্ট
অনাদর ও অবহেলার তুমুল কষ্ট,
ভুল রমণী ভালোবাসার
ভুল নেতাদের জনসভার
হাইডোজেনে দুইটি জোকার নষ্ট হবার কষ্ট আছে
কষ্ট নেবে কষ্ট।

ছিপছিপে লম্বা হাস্য উজ্জ্বল এক যুবকের প্রবেশ'

: থাক থাক আর কবিতা আবৃত্তি করতে হবে না' কথা ছিলো নাটক দেখতে যাবো' খামোখা সময়টা নষ্ট করলে!

: আমাদের সময়টা তো এমনিতেই নষ্ট।
: দায় চাপাবে কার ঘাড়ে?
: এমন সুজন কোথায় আছে ভবে' কথা দিয়ে কথা রাখবে যে?
: হতাশা রাখো দোস্ত' চল এখুনি বের হই।
: চেয়ে দেখো কে কথা রাখেনি' কার কথা রাখার কথা ছিলো' সেদিন বকুল তলে .....।

দেয়ালে উল্টো করে ফিরিয়ে রাখা ছবি এবার দর্শকের দিকে ফিরবে- লিটা আবদুল্লাহর লাস্যময়ী ছবি.......।

বাকিটা মনে করতে পারছিনে' তবে পর্দা নামার গান ছিলো শুভদা ছবির 'এতো সুখ সইবো কেমন করে'।

তৃতীয় দৃশ্য:

কালোবাজারী* বিচিত্র পথচারী* এবং হাইজ্যাকারী- নোয়াখালী আঞ্চলিক ভাষায় বিচিত্র সব শব্দের প্রয়োগ।
বাকিটা মনে করতে পারছিনে' তবে পর্দা নামার গান ছিলো 'খোল খোল দ্বার'।

চতুর্থ দৃশ্য:

মুখর রেস্তোরায় বিষন্ন সব যুবক' নীল ধোয়াতে আছন্ন হয়ে আছে। প্রস্থান করছে মাস্তান সাথে তার সহকারী প্রকান্ড দেহদারী।

: এই সামনে ১০ টাকা ৫০ এমনি মাস্তানের ইশারায় রেস্তোরা ম্যানেজার গ্রীবা উল্টো করে ঘুরিয়ে দেয় সহকারী।
অত:পর বিভিন্ন আলোচনা' রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সামাজিক বিষয়ের খুঁটিনাটি....
বাকিটা মনে করতে পারছিনে' তবে পর্দা নামার গান ছিলো 'পূব দিগন্তে সূর্য্য উঠেছে'...।

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 01 Nov 2012 »

* আদিকাব্য - রামায়ণ*

আবারো সেই ৮২-৮৩ সালের কথা।
চুনতী।
আমার এক আত্মীয় বন্ধু ঢাকা থেকে বেড়াতে এসেছেন।
প্রথম দিন বিকেলে তাকে নিয়ে দর্শনীয় সব স্থানে গেলাম-
ব্রাক্ষণ পুকুর' হাটখোলা মুড়া' করল্লা কাটা' ঘুরে মোকতার উদ্দী'র দোকানে চা পান।

দ্বিতীয় দিন- অতি ভোরে উঠে বনমোরগ শিকারে বের হলাম। সাথে যথারীতি ফুফাতো ভাই মিয়া হেলাল উদ্দীন, কবি চাচা শহীদ আহম্মদ খান মন্টু এবং পেশাদার শিকারী আশরাফ আলী।

তৃতীয়দিন- অলস দুপুরে বন্ধুর হাতে দেখি রামায়ণ! পাশে পড়ে আছে মার্শাল ব্যাগ থেকে উকি দিচ্ছে এক কাউবয় ক্যাপ। উকি দিয়ে দেখি এরফান জেসাফ!

উত্তেজনায় বন্ধুকে আমি হতবাক করে দিয়ে শ্রেফ জড়িয়ে ধরেছিলাম। যদিও পঞ্চম দিনের আগে বইটি পড়ার সৌভাগ্য আমার হয়নি' তবুও আজো আমি বন্ধুটার কাছে কৃতজ্ঞ।

*রামায়ণ*

দেবর্ষি নারদের কাছে ইক্ক্বাকুবংশীয় রাজা রামের গুণকীর্তন* শুনে বাল্মীকি যখন শিষ্য ভরদ্বাজকে নিয়ে তমসা নদীতে স্নান করতে যাচ্ছেন তখন দেখলেন এক ব্যাধ হত্যাযজ্ঞে মেতেছে। বাল্মীকি তখন তাকে অভিশাপ দিলেন। আসলে তা ছিলো স্বয়ং ব্রক্ষার ইচ্ছে* এবং ব্রক্ষার নির্দেশে বাল্মীকি লিখলেন এ মহাকাব্য। ব্রক্ষা আশ্বাস দিয়েছিলেন কোন কথাই মিথ্যা হবে না।
যদিও মহাভারত রচনা আগে শুরু হয়েছিলো (খ্রিষ্টপূর্ব চতুর্থ বা পঞ্চম দশকে) তবুও রামায়ণ আগে শেষ হয়েছিলো (খ্রিষ্টপূর্ব দ্বিতীয় বা তৃতীয় দশকে)। এখানে আরেকটি কথা প্রয়োজন বলে মনে করি তা হচ্ছে রামায়ণ শেষ হবার মুখে রচিত হয়েছিলো মনুসংহিতা, বাৎস্যায়নের কামসূত্র, কোটিল্যের অর্থশাস্ত্র ইত্যাদি।

* অভিশপ্ত ব্যাধ বধ করেছিলো কামরত/ মিথুনরত এক ক্রৌঞ্জকে এবং অভিশাপ বাণী ছিলো - হত্যাকারী হিসাবে সে চিরদিন পতিত থাকবে।
(চলবে)

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 03 Nov 2012 »

প্রধান চরিত্র রাম' যিনি এসেছিলেন মহিষী কৈশিল্ল্যার গর্ভে' দশরথের জৌষ্ট পুত্র হিসাবে। হিন্দু ধর্ম মতে' রাম যুগে যুগে বিভিন্ন বেশে বিভিন্ন উদ্দেশ্যে এই মর্তে আর্বিভূত হয়েছেন। ঐ সময়ে রামের আগমনের প্রধান উদ্দেশ্য ছিলো:

এক: লঙ্কার অত্যাচারী রাক্ষস রাজা রাবণকে ধ্বংস। যার সীমাহীন অত্যাচার দেবতারা পর্যন্ত অতিষ্ট হয়ে উঠেছিলেন।
দুই: ব্রক্ষা এবং বিষ্ণু তাকে পাঠিয়েছিলেন। কারণ বর্ণনায় আছে, অন্যান্য দেবতাদের অনুরোধে ব্রক্ষা কথা দিয়েছিলেন- মানুষের হাতেই এই রাক্ষস রাজা প্রাণ হারাবে। অন্যদিকে, বিষ্ণু* ও এ মতে স্বীকৃত হলেন এবং নিজেকে চারভাগে বিভক্ত করে দশরথের ৩ স্ত্রীর মধ্যে ছড়িয়ে দিলেন। যার মধ্য থেকে রামের জম্ম এবং বিষ্ণুর সর্বাধিক অংশ রামের মধ্যে ছিলো বলে তাকে বিষ্ণুর অবতার বলা হয়। রামরা ছিলেন চার ভাই। রাম, লক্ষন, ভরত ও শত্রুঘ্ন' ভাইরা সবাই রামকে অত্যন্ত শ্রদ্ধা সমীহ করতো।
(চলবে)

Laila Mamtaz Rupa

  • Chunati(Deputi para),Boro Pukurer Purbo Par.Lohagara,Chaattagram.
  • 01819612230
  • rupa.lailamamtaz@gmail.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 03 Nov 2012 »

আসসালামু আলাইকুম।
আপনার নাটকটার সময় সম্ভবত '৯১।এর নায়িকা চরিত্রে অভিনয়ের জন্য প্রথমে আপনি আমাকে অনুরোধ করে ছিলেন।মহিলা কলেজে এর রিহার্সাল হয়েছিলো একদিন। হাস্তে হাস্তে একটা সংলাপ ও বলতে পারছিলাম না।এরপর কিছু একটা সমস্যা হয়েছিলো ।সিদ্ধান্ত বদলে নায়িকা ছবি হয়ে যায়।প্রথম বাছাই ছিল বোধহয় গুড্ডুর একটা ছবি। এই নাটকটাই না?

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 03 Nov 2012 »

হ্যা ঠিক তাই। তাছাড়া, ভাবীর ও আপত্তি ছিলো তাতে।



Kasshaful Haque Shehzad

  • Manager (HR & Compliance), World Ye Apparels (BD) Ltd., Plot # 61-64 & 70-73, Sector # 2, KEPZ, North Patenga, Chittagong-4223.
  • 01777701373
  • kasshafulhaque@gmail.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 03 Nov 2012 »

নাটকের একটা ডায়লগ মনে পড়ছে - 'ইউ শাট আপ ! শালা বাস্টারড।' - সম্ভবতঃ মুজিবের ডায়লগ ছিলো এটি। ওকে এই ডায়লগটা ঠিক করে দিতে গিয়ে আমাকে যথেষ্ট বেগ পেতে হয়েছিলো।

Laila Mamtaz Rupa

  • Chunati(Deputi para),Boro Pukurer Purbo Par.Lohagara,Chaattagram.
  • 01819612230
  • rupa.lailamamtaz@gmail.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 03 Nov 2012 »

এর কাছাকাছি সময়ে একটা দেয়ালিকা বের হয়েছিলো ।নাম ছিল 'ষোড়শী'। ওটাতে একটা parody ধাঁচের কবিতা ছিল।আয়না দিয়ে পড়তে হত। উল্টা দিক থেকে লেখা।

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 04 Nov 2012 »

রামায়নের প্রধান চরিত্র রামের বয়স ২৫ পূর্ণ হবার আগে তার সাথে সীতার বিবাহ হয়। যেদিন রামের বয়স ২৫ পূর্ণ হয় সেদিন যৌবরাজ্যের রাজা হিসাবে সে স্বীকৃতি পাবার কথা ছিলো। কিন্তু বিমাতা কৈকেয়ী তার প্রিয় দাসী মন্থরার চক্রান্তে ঐ অভিষেক অনুষ্ঠান পন্ড করেন। পিছনের কাহিনী ছিলো এ রকম:

কৈকেয়ী তার স্বামী দশরথের (রামের পিতা) কাছে বর* প্রার্থনা করলে তিনি বর দিতে সম্মত হয়েছিলেন। যেহেতু হিন্দু ধর্মে* স্ত্রীরা স্বামীকে দেবতা জ্ঞান করে' সেহেতু দেবতারা স্বামীকে ঐ অধিকারও প্রদান করেন। তবে তা অবশ্যই দেবতাদের সমতুল্য নয়। বর চাওয়া হয়েছিলো ২টি বিষয়ে :
এক- যৌব রাজ্যের রাজা হবে তার পুত্র ভরত।
দুই- রামকে ১৪ বছরের জন্য বনবাসে পাঠাতে হবে।

অত:পর রামের সাথে তার নববধু সীতা এবং সৎভাই লক্ষণও বসবাসে চলে গেলো।
রাম বনবাসে যাবার অল্প কিছুদিন পরেই তার পিতা দশরথের মৃত্যু হলে রামের সৎ ভাই ভরত* রামের কাছে গিয়ে তাকে রাজ্যভার গ্রহণ করতে বললে রাম তা স্ববিনয়ে প্রত্যাখান করে। অবশেষে বহু বাধা বিপত্তি পেরিয়ে রাম, সীতা, লক্ষণ, পঞ্জবটী অরণ্যে আশ্রম স্থাপন করলো।
অন্যদিকে, রাক্ষস রাজের বোন বিধবা শূর্পনখা আশ্রমে এসে রাম লক্ষণকে দেখে মুগ্ধ হয়ে গেলো। কিন্তু কেউ তাকে পাত্তা দিলো না। সে মনে করলো সীতাই তার পথের কাঁটা। তাই সে সীতাকে সরাসরি আক্রমণ করলো। সাথে সাথে লক্ষণ এসে রাক্ষসীর নাক এবং কান কেটে দিলো।
খালাতো বোনের এই দশা দেখে খর* সেনাপতি দূষণ, ত্রিশিরা এবং চৌদ্দ হাজার রাক্ষস সৈন্য নিয়ে যুদ্ধ করতে এগিয়ে এলে' রাম, লক্ষণ তাদেরকে যুদ্ধে পরাজিত করে। এই পরাজয়ের সংবাদ রাক্ষস রাজের কানে গেলে সে উপদেষ্টা মন্ডলীদের তলব করে। প্রধান উপদেষ্টা রাক্ষস অকম্পণ রাবণকে বলে- রামকে কখনো যুদ্ধে পরাজিত করা সম্ভব নয়। কিন্তু যদি তার সুন্দরী স্ত্রীকে হরণ করে অসতী করা যায় তবেই ঐ শোক অপমানে রামের মৃত্যু হতে পারে।
বৈঠককালীন সময়ে ঝড়ের বেগে ঐ ঘরে প্রবেশ করে রাক্ষস রাজের ব্যর্থ প্রেমিক বোন শূর্পনখা। রাবণকে উত্তেজিত করতে সে বলে :
ভাই তোমার জন্য সুন্দরী সীতাকে আনতে গিয়েছিলাম তাই আমার এই দূদর্শা ইত্যাদি ইত্যাদি। কামক্রোধে প্রজ্জ্বলিত রাবণ তার আরেক অনুচর মারীচকে আদেশ করে- সে যাতে এখুনি পঞ্চবটি অরণ্যে গিয়ে মায়া হরিণের বেশ ধারণ করে রামকে একদিকে নিয়ে যায়। পরিনতি আন্দাজ করে মারীচও ভীত ছিলো, তবু রাজ আদেশ।
এদিকে মায়াহরিণ দেখে সীতা ব্যাকুল হয়ে যায় এবং রামকে বলে ঐ হরিণটি যে কোনভাবে তার চাই।
(চলবে)

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 04 Nov 2012 »

মায়া হরিণের পিছু ধাওয়া করার আগে রাম নিজ হাতে গোলক আকঁলেন। অত:পর সীতাকে বললেন- সে যাতে কোন মতেই এই বৃত্তের বাহিরে না যায়, তবে বিপদ হতে পারে।
মায়া হরিণের পিছু ধাওয়া করে কব্জা করতে না পেরে তীর নিক্ষেপ করলেন। তাতে মারীচ নিহত হলো। মৃত্যুর আগে রাবণের নির্দেশে রামের কন্ঠস্বর অনুকরণ করে হায় সীতা' হায় লক্ষণ' বলে বিলাপ করে উঠলো।
এদিকে, সীতার অনুরোধে লক্ষণ রামের খোঁজে বেড়িয়েছে। পথে দেখা মেলে শুকুন রাজা পৃথরাজ জঠায়ু* পাখা ভেঙ্গে পড়ে আছে। জঠায়ু জানালো- রাক্ষস রাজা রাবণ হরিছে সীতারে' বাঁধা দিতে গিয়েছিনু' অমনি তরবারির এক কোপ'। মৃত্যুর আগে জঠায়ু আরো বলে- শোন লক্ষণ' রাক্ষস রাজ বিশ্রবার পুত্র এবং কুবেরের ভ্রাতা' এ কথা জানিও।

* তারপরে বহু কাহিনী' বহু নাটক' রয়েছে, যা এখানে সীমিত আকারে লেখা সম্ভব নয়। তবুও কিছুটা বর্ণনা না করলে আমার সেইদিনের আনন্দ পাঠে* আপনাদেরকে শামিল না করার অপরাধে অপরাধী হবো।
রাম তার বানর সৈন্যের সাহায্যে মাত্র ৫ দিনে নল সাগরে সেতু তৈরি করেছিলো।

অত:পর ডুয়েলে যাবার আগে বারবার রাবণকে অনুরোধ করেছিলো- তুমি সীতাকে ফিরিয়ে দাও এবং ক্ষমা প্রার্থনা করো। তবে আমি ফিরে যাবো' আর তুমিও বেঁচে যাবে। কিন্তু রাবণ যুদ্ধ বেছে নিলো। এ যুদ্ধে অদৃশ্য থেকে মেঘমালার মাধ্যমে তার পুত্র ইন্দ্রজিৎ পিতাকে সাহায্য করার চেষ্টা করেছিলো। কিন্তু সব অপচেষ্টা বৃথা করে দিয়ে রাম রাক্ষস রাজের নিধন করে সীতাকে উদ্ধার করলেন।
দেবতারও সন্দেহের মন* নারী চরিত্র নিয়ে সাধারণ মানুষের মতন সন্দিহান! ফলে যা হবার তাই হলো। সীতাকে অগ্নি পরীক্ষার মুখোমুখি করলে স্বয়ং অগ্নি দেবতা সীতাকে রক্ষার জন্য এগিয়ে আসে। এরপরও প্রজারা যখন রাবণকে জড়িয়ে সীতা সম্পর্কে বিভিন্ন ধরনের অপবাদ দেয়' তখন রাম তার ভাইদের সাথে পরামর্শে বসেছিলেন। বিধির লিখন খন্ডাবে কে?

অত:পর আবারও সীতাকে সতীত্ব পরীক্ষার মুখোমুখি করা হলে মা ধরিত্রী এসে সীতাকে আলিঙ্গন করে পাতালে নিয়ে যায়। অন্যদিকে আরেক বর্ণনায় আছে, 'বিষ্ণু যখন রাম হয়ে মর্তে আসবেন তখন তিনি দীর্ঘদিন স্ত্রী হারা হয়ে থাকবেন' এ ছিলো পুরাকালের অসূর দেবতার স্বর্গে যুদ্ধের সময়* জনৈকার অভিশাপ।

তার মানে দূর্গতি নাশিনী দূর্গাদেবী অসূর নিধন করেছিলো রামের মর্তে আর্বিভাবের বহু আগে। যাকে পুরাকাল বলা হয়েছে।

এদিকে সীতাকে হারিয়ে রাম যখন পাগল প্রায় তখন সৎভাই লক্ষণও মারা গেল (লক্ষণের মৃত্যু ছিলো এক অপকৌশলের জালে)।

বিরহী রাম* পুত্র লুব ও কুশকে রাজ্যভার সর্মপন করে সরযু নদীতে নেমে অর্ন্তহিত হয়ে গিয়েছিলেন।
অন্য এক বর্ণনায় আছে, ব্রক্ষা রামকে সীতার ব্যাপারে সান্ত্বনা দিয়ে বলেছিলেন- সূরালোকে আবার তোমাদের মিলন হবে।

*হিন্দু ধর্মে বিশ্বাসীগণ যুগে যুগে এ কাহিনী লালন করে আসছেন' তেমনি আদিকাব্য হিসাবে রামায়ণের রয়েছে সাহিত্যে বিশেষ স্থান। এলেখা লিখতে গিয়ে আমাকে অনেক ঘটনা সংক্ষিপ্ত করতে হয়েছে, তাতে অনেক চরিত্র বাদ পড়েছে। যেমন- লক্ষণ বিবাহিত ছিলেন। তার স্ত্রীর নাম ছিলো উর্মিলা। অবশ্য মহাকাব্যতেও উর্মিলা উপেক্ষিত হয়েছিলো। তেমনি কুম্ভকর্ণ*র কথা আমি লিখিনি।
ধন্যবাদ।

Saiful Huda Siddiquee

  • "Chunati. "
  • 031-2853031, 01819-328359
  • shsiddiquee@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 04 Nov 2012 »

লেখাটির ৫০তম অংশে খুব বলতে ইছছে হল
অর্ধ শতক হল, এই লেখাটির
১০০ এপিসোড এর অপেক্ষায় রইলাম ।
সাথে আপনার এবং কবি আদনান সাকিবের কবিতা হলে আরো ভালো হয়।

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 04 Nov 2012 »

ধন্যবাদ ছাইফুল ভাই।
আসলে আমি লেখক কিংবা কবি কিছুই নই। তবে আমার মধ্যে পিপাসা আছে। আমি লিখতে চাই - লেখকের মত না হলেও ...। আমার এই স্পর্ধা আপনারা মেনে নিচ্ছেন এতেই আমি ধন্য।
: মৌলিক লেখা লিখতে হলে ঘুরে ফিরে সেই একই বৃত্ত আর নৈবাদ্য'
কখনওবা জটিল সংসার, অশালীন জৈবিক ইঙ্গিত, রগরগে সব বর্ণণ
রূপ-রস, আঁখি চক্ষুর সাথে ঠোট নখ আরো কত কি অত:পর ঘুরে ফিরে
নারী - পুরুষের সেই চিরন্তন প্রেম কাহিনী।
ইতিহাস নির্ভর হলে পাছে লোকে কিছু বলে।
তবু হয়তো কিংবদন্তী আমায় ত্যাদড় হতে শিখিয়েছে।

পুরানো মানব আমরা তবু নিত্য নতুন এক বুক পিপাসা
তাড়িয়ে নিয়ে যায় ঘুরে ফিরে সেই বকুল তলে
বেহুঁশ হয়ে পড়ি ফুলের মন ভোলানো সুরভী গন্ধে
আরবার আর দিন।
ধন্যবাদ।

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 06 Nov 2012 »

* আমি ধন্য হয়েছি ওগো ধন্য
তোমারি প্রেমের জন্য*

সময়কাল ৮১ – ৮২ ইংরেজী। আমি তখন চুনতি হাইস্কুলের ছাত্র। শ্রদ্ধেয় শিক্ষক জনাব রোকন উদ্দিন খান এবং আব্দুল খালেক স্যার আমায় খুব স্নেহ করতেন। উনারা প্রায় আমার সাথে বাংলা সাহিত্য এবং ব্যাকরণের বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করতেন, উপদেশ দিতেন। কথা প্রসংঙ্গে উঠে আসতো মধ্যযুগের কবি কোরেশী মাগন ঠাকুর* আলাওল* কানাহরি দত্ত* নারায়ণ দেব* বিজয় গুপ্ত* মুকুন্দরাম চক্রবর্তী সহ আরো অনেকের নাম। আমি বিস্মিত হতাম আর মনে মনে আশা রাখতাম একদিন আমি অবশ্যই কবিদের লেখা পড়বো। পরবর্তীতে বন্ধুদের কল্যাণে আমার সেই ইচ্ছে পূরণ হয়েছিলো- আমার অনেক বন্ধু ছিলো বাংলা সাহিত্যের ছাত্র এবং ঘরে ছোটবোন।

কোরেশী মাগন ঠাকুর*
কর্মজীবনে তিনি ছিলেন প্রথমে আরকান রাজার একজন প্রধান কর্মচারী। উনার পিতার নাম ছিল বড়াই ঠাকুর। তিনি তখনকার আরকানের রাজা নরপিতজ্ঞির একজন অন্যতম মন্ত্রী ছিলেন। রাজার মৃত্যুর পর রাজকন্যার অভিভাবকত্ব মাগন ঠাকুরের উপর ন্যাস্ত হয়েছিলো। যার ফলে রাজকন্যা যখন সিংহাসনে বসলেন, তখন তিনি প্রধান মন্ত্রীর পদমর্যাদা লাভ করেছিলেন। মাগন ঠাকুরের পৈত্রিক বাসস্থান চট্টগ্রাম জেলার পটিয়া উপজেলার চক্রশালাতে।

কবি মাগন ঠাকুর সঙ্গীত ও অলংকার শাস্ত্রেও পন্ডিত ছিলেন।
* মাগন ঠাকুরের কাব্যগ্রন্থের নাম চন্দ্রাবতী।

** মধ্যযুগের এই কবির বিশেষ উৎসাহ এবং অনুপ্রেরণায় মহাকবি আলাওল পদ্মাবতী রচনা করেছিলেন।

আলাওল*
প্রেম বিনে ভঅব নাই ভাব বিনে রস
ত্রিভূবনে যাহা দেখি প্রেম হুনতে (হতে) বশ
যার হুদে জম্মিলেক প্রেমের অংকুর
মুক্তি পাইল সে প্রেমের ঠাকুর।
- পদ্মাবতী কাব্যের একটি অন্তরা’

কবি আলাওল চট্টগ্রামের ফতেয়াবাদের সন্তান। উনার জন্ম সম্ভবত ১৫৯৭ সালে এবং মৃত্যু ১৬৭৩ সালে। সম্ভবত বলার কারণ হচ্ছে ঐতিহাসিকগণ ঐভাবেই ধারণা করেছেন।

কর্মজীবনে কবি ছিলেন আরকান রাজার একজন অশ্বারোহী সেনা। মাগন ঠাকুর কিভাবে যেন কবির কাব্য প্রতিভা আন্দাজ করেন এবং কবিকে সর্বতোভাবে কাব্য চর্চায় সহযোগীতা করেন।আরকান রাজাকে সরাসরি জানান কবির নিম্নলিখিত বিরল প্রতিভার সম্পর্কে:

১। ভাষা দখল: আরবি, ফারসী, হিন্দী এবং সংস্কৃত।
২। পারদর্শীতা: যোগশাস্ত্র, কামশাস্ত্র, অধ্যাত্মবিদ্যা, ধর্মবিদ্যা, যুদ্ধবিদ্যা প্রভৃতি।

গুনমুগ্ধ রাজা আলাওলকে রাজসভার কবি করে নিয়েছিলেন। কবি সুযোগ কাজে লাগালেন- অনুবাদ করলেন মালিক মোহাম্মদ জায়সীর হিন্দিকাব্য পদ্মমাবৎ* নাম দিলেন পদ্মাবতী। অনুবাদ করলেন সয়ফল মূলুক ও বদিউজ্জামাল নামক পারস্য কাব্য। ‘সতীময়না’ নামক এক অসমাপ্ত কাব্যও কবি শেষ করেছিলেন। ঐ অসমাপ্ত কাব্যটির লেখক ছিলেন মধ্যযুগের আরেক কবি দৌলত কাজী।

তথ্যসংগ্রহ: পুরানো পাঠ্যপুস্তক এবং ইন্টারনেট তথ্যের সমন্বয়। কারণ আমার কাছে পুরানো পাঠ্যপুস্তক সংগ্রহে ছিলো না। তবে বিষয়টি সম্পর্কে ধারণা ছিলো বলে যা দরকার লিখেছি অর্থাৎ ইন্টারনেট তথ্যকে প্রাধান্য দিয়েছি।

শেষ বেলায়, সুখ স্মৃতি হিসাবে রোমন্থন করছি চর্যাপদ ।
বৈষ্ণব পদাবলির রাধা-কৃষ্ণের প্রেমলীলা*

অন্যদিকে, কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কিছু গানেও বৈষ্ণব পদাবলীর ভালবাসার ছোঁয়া পাওয়া যায়-
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই ...
নয়ন তোমারে পায়না দেখিতে ...

সকল পাঠককে ধন্যবাদ।
আবারও দেখা হবে হয়তো কোন সন্ধ্যাকাব্যের* আসরে (?)
মৈমনসিংহ গীতিকার কোন গীত শুনে হয়তো দিওয়ানা হবো আরবার...

Adnan Saquib

  • "Enayet Ali Ukil Bari. Munsef Bazar.Chunati.Lohagara.Chittagong. "
  • 01777651009
  • highwaymarkinc@gmail.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 07 Nov 2012 »

গুরু কবি,
যা করছেননা!!!!!
মধুভরা মৌচাক... ছেঁকে ছেঁকে খাচ্ছি...
পুরনো মধু, জমে একেবারে চাকা চাকা হয়ে গেছে নির্যাস ঘন নিখাদ !
গুরু, পড়েছি আমরা হামলে, এ কোন রস মঞ্জুরী বুনন ফাঁদ?
পাঠক যেখানে নাদান হয়- যেনো সব মক্ষিকা মাছি...


গুরুকবি... আপনাকে একটা উড়ন্ত চুমো ছুড়ে দিলাম।
ভালো থাকবেন।


অধম...
আদনান সাকিব

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 07 Nov 2012 »

Kobi Bhai.

Thank you very much.

Saiful Huda Siddiquee

  • "Chunati. "
  • 031-2853031, 01819-328359
  • shsiddiquee@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 10 Nov 2012 »

তিন দিন
৭-১১-১২ থেকে আজকের তারিখ
১০।১১।১২
আজকের দিন এর তারিখ

Laila Mamtaz Rupa

  • Chunati(Deputi para),Boro Pukurer Purbo Par.Lohagara,Chaattagram.
  • 01819612230
  • rupa.lailamamtaz@gmail.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 10 Nov 2012 »

সালাম। 'তিন দিন 'কী?

Saiful Huda Siddiquee

  • "Chunati. "
  • 031-2853031, 01819-328359
  • shsiddiquee@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 11 Nov 2012 »


কবি ও লেখক মিজান উদ্দিন খান এর এই লেখাটি
চুনতি ডট কম এর ফোরাম পাতার সবচাইতে বেশী
সংখ্যক ভিজিট হয়েছে এবং আমরা সবাই উনার
লেখাগুলো ধারুন ভাবে উপভোগ করছি।
কিন্তু গতকাল দেখলাম ফোরাম এর ১ম পাতায় লেখাটি নেই।
খুজে দেখলাম এই লেখাটি ২য় পাতায়।
তার কারণ ০৭-১১-২০১২ এর পরে কোন লেখা নাই,
এর পর আমি ১০।১১।১২ তারিখের,
বিশেষ দিকটি সংখ্যা ক্রম সবাইকে জানাতে লেখলাম
তিন দিন মানে ০৭।১১।১২ থেকে ১০।১১।১২ তারিখ।
কবি ও লেখক মিজান উদ্দিন খান কে নিয়মিত লেখার অনুরোধ রইল।

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 11 Nov 2012 »

কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি - ডটকম এডমিন, ছাইফুল ভাই, শেহজাদ মামা, রূপা, আশিক মামা, কবি আদনান সাকিব (আদরের শালা) সহ সকলকে।

আপনারা চাইলে অবশ্যই আমি নিয়মিতভাবে লিখবো।

সকলকে আবারো ধন্যবাদ।

* পরবর্তীতে আমি রূপবান কিংবা বেদের মেয়ে জোছনার মতন অসম প্রেম কাহিনী কিংবদন্তী নিয়ে লিখবো বলে ভাবছি*।

লিখবো?

কঠিন তেতো জীবনে এতে পাঠক হয়তো একটু ভিন্ন স্বাদ পাবেন ....

Adnan Saquib

  • "Enayet Ali Ukil Bari. Munsef Bazar.Chunati.Lohagara.Chittagong. "
  • 01777651009
  • highwaymarkinc@gmail.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 11 Nov 2012 »

গুরুকবি...
আমার অনুরোধ আপনার কাছে
এই পোস্ট-এর সব লেখা প্রতিউত্তরসহ যদি 'Writer's panel'-এ রাখেন
তবে অনেক সমঝদারের কষ্ট হবেনা, যারা হাতড়ে হাতড়ে খুঁজে ফেরে জীবনের আস্বাদ।

আপনার অনুগ্রহ...

ধন্যবাদ

Mizan Uddin Khan(Babu)

  • "Chunati Deputy Bari ,Chittagong."
  • 01553324709
  • mizanuddin_khan@yahoo.com
Re: রোমন্থন এবঙ জীবন আমার বোন’
« on: 11 Nov 2012 »

না বলা কথা :
বেদের মেয়ে জোসনা যখন লিখবো তখন কাহিনীটিকে প্রাণবন্ত করতে বিশেষ অন্তরা পরে এভাবে গানের লিঙ্ক থাকবে :

http://bd-gaan.com/bangla-songs/bangla-film_songs/Beder_Meye_Joshna/Beder_meye_josna.MP3

আপত্তি নাই তো?