Forum



Author Topic: আগাম শীতবস্ত্র ও ঔষধ বিতরণ কর্মসূচী (Read 236 Times)

Saiful Huda Siddiquee

  • "Chunati. "
  • 031-2853031, 01819-328359
  • shsiddiquee@yahoo.com
আগাম শীতবস্ত্র ও ঔষধ বিতরণ কর্মসূচী
« on: 05 Oct 2015 »

আগাম শীতবস্ত্র ও ঔষধ বিতরণ কর্মসূচী
পবিত্র ঈদ উল আযহা’২০১৫ উপলক্ষে গিয়েছিলাম আমাদের প্রিয় গ্রাম চুনতিতে।গ্রামে পৌছেঁই সকাল থেকে ব্যস্ত ছিলাম চুনতি মহিলা ডিগ্রী কলেজ এর হলঘরে চুনতি সমিতি, ঢাকার ২০১৫ শিক্ষাবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে। চুনতিডটকম(www,chunati.com) এর সহযোগীতায় আয়োজিত এ মহতি অনুষ্ঠানে চুনতি সমিতি, ঢাকা কতৃক ২য় বারের মতোন চুনতি গ্রামের তিনটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মোট ১২ (বার) জন মেধাবী ও অসচ্ছল পরিবারের ছাত্র ছাত্রীকে সনদ ও এককালীন অনুদান প্রদান করা হয়। এরপর সারাদিন-রাত আত্বীয়-স্বজন,বন্ধু-বা্ন্ধব, ছোট বড় ও মুরব্বী সবার সাথে সাক্ষাৎপর্ব, চুনতি গ্রামে আমার সেই প্রিয় সবুজের মাঝে হারিয়ে যাওয়া আর মজার মজার খাওয়া দাওয়া আড্ডা শেষে রাত বারোটায় ঘুমোতে গেলাম।পরেরদিন পাখিডাকা ভোরেই ঘুম থেকে উঠেই গায়ে কেমন যেন শীত শীত অনুভব হল। ঘরের বাইরে বেরোতেই গায়ে হিমেল হাওয়া লাগলো, নজরকাড়লো সবুজ ঘাসের ডগায় ডগায় আর বৃক্ষরাজির কোমল পাতায় পাতায় জমে থাকা শিশির বিন্দু।সবুজ শ্যামল পাহাড় বেষ্টিত, চুনতি অভয়ারাণ্য সহ-ব্যবস্থাপনায় সফলতার স্বীকৃত, জাতি-সংঘের ইকুয়েটর-২০১২ পুরস্কার প্রাপ্ত চুনতি গ্রামে এসে শীতের অগ্রীম আগমনী বার্তা পেলাম।আমরা যদিও এখন শরৎকালের শেষের দিকে, দয়জায় কড়া নাড়ছে আর কয়েকদিন পরে আসছে হেমন্ত, এর পর পরই হুড়হুড় করেই নেমে আসবে শীত।শীত আসলে আমাদের দেশে সবার মনে আনন্দ দোলা দেয়।নানা ধরনের আয়োজন হয় পিকনিক, আনন্দ-ভ্রমন আর বাংলার ঐতিহ্যবাহী পিঠাপুলির সমারোহ, খেজুর রস আর নানা সামাজিক আয়োজনে শীত হয়ে উঠে মুখরিত।কিন্তু শীত আবার দুঃখের বার্তাও বয়ে নিয়ে আসে সেইসব ছিন্নমুল অসচ্ছল মানুষগুলোর জন্য যাদের শীতে কাপড় ও প্রয়োজনীয় ঔষধ কেনার ক্ষমতা নেই।আবহাওয়া পরিবর্তনের সাথে সাথে সর্দি-কাশি নানা ধরনের রোগ দেখা দেয়। বিশেষ করে শিশু ও বৃদ্ধগণ নানা রোগের শিকার হন।এই ক্ষেত্রে শীত রোগের প্রতিরোধ, বিনামূল্যে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ বিতরণ কর্মসূচীও নেওয়া জরুরী।
আমাদের দেশের সরকারী এবং বেসরকারী পর্যায়ে, ব্যত্তিগত ও সামাজিকভাবে বিভিন্ন সংগঠন, রোটারের্ক্ট, রোটারি ও লায়ন ক্লাব গুলো তথা সমাজের বিত্তবান ও চিত্তবান সবার প্রতি আমার বিনীত অনুরোধ আসুন আমরা তীব্রশীত নেমে আসার আগে এখন থেকেই শীতের রোগ প্রতিরোধ সচেতনতা, বিনামূল্যে শীতবস্ত্র, কম্বল, প্রয়োজনীয় ঔষধ ও চিকিৎসা সামগ্রী বিতরণ শুরু করি, যাতে আমাদের সমাজে অবহেলিত, সুবিধাবঞ্চিত, দুঃস্থ ও অসহায়, মানুষগুলো একদিনের জন্যেও শীতের কষ্ট না পায়।সামাজিক দায় এবং একজন প্রতিবেশী হিসাবে সমাজে অবহেলিত, সুবিধাবঞ্চিত, দুঃস্থ ও অসহায়, মানুষকে শীত আসার আগেভাগে অর্থাৎ যথাসময়ে তাদের মৌলিক অধিকার চিকিৎসা সেবা ,ঔষধ ও শীতবস্ত্র প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য দেরী না করে আমাদের সবাইকে এখন থেকে কাজ শুরু করতে হবে।